কলকাতা: রাজ্যের প্রতিটি ব্লকে কাজের জন্য ‘গ্রামীন সম্পদ কর্মী’ পদে কয়েক হাজার লোক নেওয়া হবে৷ কলকাতা বাদে রাজ্যের ১৯ টি জেলার মধ্যে বীরভূম,মালদহ ও উওর চব্বিশ পরগণা জেলার ব্লকগুলিতে এই পদে লোক নেওয়ার জন্য দরখাস্ত নেওয়া হয়েছে৷ অন্য আর ১৬টি জেলায় এখন এই পদে লোক নেওয়ার কাজ চলছে৷হুগলি জেলার বিভিন্ন ব্লকে এখন দরখাস্ত নেওয়া হচ্ছে৷ অন্যান্য জেলায়ও দরখাস্ত নেওয়ার কাজ শিগগিরিই শুরু হবে৷

হুগলি জেলার বেলায়: মাধ্যমিক পাশ ছেলেমেয়েরা হুগলি জেলার ‘গ্রামীন সম্পদ ব্যাক্তি’ পদের জন্য এখনই আবেদন করতে পারেন৷ বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় লিখতে ও পড়তে জানা দরকার৷ প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট ব্লকের অধিবাসী ও ভোটার হতে হবে৷ বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে৷ তপশিলী,ওবিসিরা যথারাতি বয়সে ছাড় পাবেন৷ প্রার্থীকে অবশ্যই শারীরিকভাবে সক্ষম হতে হবে৷ পৌরসভা এলাকার বাসিন্দারা যোগ্য নন৷ তবে মহিলা ও তপশিলী হলে অগ্রাধিকার পাবেন৷ যেকোনো গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় কাজ করতে হবে৷ কম্পিউটার জানলে অগ্রাধিকার পাবেন৷ পারিশ্রমিক দৈনিক ৩৪৮ টাকা৷ শূণ্যপদ রয়েছে ৫১০টি৷ এরমধ্যে ধনিয়াখালি,জঙ্গীপাড়া,খানাকুল,পোলবা-দাদপুর ডেভেলপমেন্ট ব্লকের অধীন গ্রাম পঞ্চায়েতে৷
প্রার্থী বাছাই হবে ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে৷ চূড়ান্ত তালিকা তৈরির সময় প্রার্থীর শিক্ষাগত যোগ্যতা,প্রাসঙ্গিক কাজের অভিজ্ঞতা ও ইন্টারভিউয়ে পাওয়া নম্বর দেখা হবে৷ ইন্টারভিউ হবে ধনিয়াখালি ও জঙ্গিপাড়া ডেভেলপমেন্ট ব্লকের সংশ্লিষ্ট ব্লক অফিসে ২৫ জুন আর খানাকুল ও পোলবা দাদপুর ডেভেলপমেন্ট ব্লকে ২৬ জুন,সংশ্লিষ্ট ব্লক অফিসে৷ ইন্টারভিউ হবে বেলা ১১টায়৷

দরখাস্ত কোথাও পাঠাতে হবে না৷ সরাসরি ইন্টারভিউ দিতে হাজির হবেন ওই ঠিকানায়৷ বিডিও বা গ্রাম প্রধানের দেওয়া বাসিন্দা সার্টিফিকেট,বয়স ও শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণপত্র,জব কার্ড,এখনকার তোলা ১ কপি পাশপোর্ট মাপের রঙিন ফটো৷

----
--