”তৃণমূলে গিয়ে সাদা কালী দেখে ফেলেছিলেন তাপস”

সৌমেন শীল, কলকাতা: ‘‘কালী প্রতিমার সাদা মূর্তি কোনওদিন দেখেছেন? দেখেননি! সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সেটাই ভুল করে দেখে ফেলেছিলেন তাপস পাল। রাজনীতির কলে পড়ে। সেই ভুলেরই মাশুল দিতে হল তাপসকে৷’’ বক্তা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়, বিজেপি নেতা৷ বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁরা একসঙ্গে কাজ করেছেন। কিন্তু রাজনীতির আঙিনায় সেই সহকর্মীদ্বয়ই হয়ে উঠেছিলেন পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বী।

রোজভ্যালী কাণ্ডে টানা ১বছর ৩মাস কটকে কারাজীবন খেটে এদিনই আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন তাপস৷ এমন সুখের দিনে ‘বন্ধু’-র পাশে দাঁড়ালেন জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। বললেন, ‘‘তাপস এবার সাদা কালী ছেড়ে কালো কালীর পুজো করুক। অভিনয়ে ফিরুক। ভালো থাকবে।”

সেটা আটের দশক৷ তখন থেকে নয়ের দশকের শেষ অবধি তাপস পাল মানেই সে এক হইহই ব্যাপার। ‘দাদার কীর্তি’ থেকে ‘গুরুদক্ষিণা’ একের পর এক সিনেমা হিট। পালা বদলের বাংলায় অবশ্য রাজনীতির আঙিনায় পা রেখে পচা শামুকে পা কেটেছে অভিনেতার৷ সেটা ২০১৬ সালের ৩০শে ডিসেম্বর। রোজভ্যালী কাণ্ডে বিলাসবহুল জীবনযাপন ছেড়ে কারাগারে ঠাঁই হয় তাঁর৷ মাঝে শারীরিক অসুস্থতা , রাজনৈতিক দোলাচল।

- Advertisement -

এই বুঝি তাপস ছাড়া পেলেন। কিন্তু দিন যায় দিন আসে। তাপসের আর ফেরে না জেল থেকে। অনেক জল্পনার পর এক বছরের বেশি সময় জেল খেটে রোজভ্যালী-কান্ডে অবশেষে জামিন পেলেন তাপস পাল। বৃহস্পতিবার মামলার শুনানি হয় কটক আদালতে। মামলার শুনানি শেষে তাপস পালের জামিন মঞ্জুর করে কটক আদালত। এক কোটি টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে শর্তসাপেক্ষে তাপসের জামিন মঞ্জুর হয়।

এমন সুখের দিনে একসময়ের ইন্ডাস্ট্রি সহকর্মী জয় তাপস পালের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘ দাদার কীর্তি দিয়ে ক্যারিয়ারে উত্তরণ। সাহেব, ভালোবাসা ভালোবাসা করে জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছানো। এই পর্যন্ত ওঁর সব ঠিক ছিল তাপস পাল গণ্ডগোল করেছেন অসৎ তৃনমূল দলে যোগ দিয়ে।’’ বিজেপি নেতার কথায়, “ওই দলটায় যোগ দিয়েই সবথেকে বড় ভুল করেছে তাপস। তারপর ভোটে জিতে এমএলএ , এমপি হল। লোভ বাড়ল। এই লোভ থেকেই রোজভ্যালি চিটকাণ্ডে ফেঁসে গেল ও৷’’

জয়ের দাবি এই দীর্ঘ পাপস্খলন হয়েছে ১ বছর জেল খেটে। এখন তাপসের সুখের দিন এসেছে। তবে গায়ে এখনও কিছু কালি ঝুলি লেগে রয়েছে। তা সরাতে এবার কালীঘাটে গিয়ে পুজো দিন তাপস পাল। তবে পুজো হোক কালো কালী মায়ের, সাদা নয়। এরপর জয় কালী বলে ফিরে আসুন সিনেমার জগতে।

Advertisement ---
---
-----