গুগলে খুঁজলে এবার ‘পথের কাঁটা’ তোলার লোকও মিলবে

পাটনা: শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘পথের কাঁটা’ নিশ্চয়ই অনেকে ভোলেননি৷ পথের কাঁটা তোলার সেই লোককে ব্যোমকেশ বক্সি খুঁজে পেয়েছিল শ্রেণিবদ্ধ বিজ্ঞাপনে৷ এখন সে রকম সিরিয়াল কিলারের খোঁজ মিলবে গুগলেও৷ বিহারের বৈশালীতে ধরার পর এক খুনিকে জেরা করার সময় এমনই এক অপ্রত্যাশিত তথ্য পেয়েছে পুলিশ। সাইকো সিরিয়াল কিলারই নিজেই জানিয়েছে, গুগলে তার নাম লিখে সার্চ করলেই পাওয়া যাবে শ্রীমানের সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য।

বছর পঁয়ত্রিশের অবিনাশ শ্রীবাস্তব ওরফে অমিত এ যাবৎ খুন করেছে ২২ জনকে। যদিও তার ধরা পড়াটা ছিল একেবারেই অন্য কারণে৷ বিহারের প্রাক্তন বিধায়কের ‘শিক্ষিত’ ছেলে অবিনাশ ব্যাঙ্ক থেকে চুরি করতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে যায়। থানায় নিয়ে গিয়ে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। তখনই তার কাছ থেকে এক পিলে-চমকানো জবানবন্দি পান জেরাকারী পুলিশ অফিসাররা৷ পুলিশকে সে অম্লানবদনে বলে, তাঁরা অযথা সময় নষ্ট করছেন। ‘সাইকো কিলার অমিত’ লিখে গুগলে সার্চ করলেই তার সম্পর্কে সমস্ত কিছু জেনে যাবেন তাঁরা।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিহারের আরজেডি দলের প্রাক্তন বিধায়ক লাল্লন শ্রীবাস্তবের ছেলে অবিনাশ ওরফে অমিত এমসিএ পাশ করে আইটি কোম্পানিতে চাকরি শুরু করে। সেই সময়েই ২০০৩ সালে পাপ্পু খান নামে এক দুষ্কৃতীর হাতে খুন হয়ে যান লাল্লন শ্রীবাস্তব। এর পরেই প্রতিশোধের ভূত চাপে অমিতের মাথায়। একের পর এক খুন করতে শুরু করে সে। সাইকো কিলার অমিতের ২২টি খুনের তালিকার চার জন তার বাবার খুনে জড়িত ছিল বলে জানা গিয়েছে। বলিউড সিনেমাপ্রেমী অমিত তার বাবার আসল খুনি পাপ্পুকে ‘গ্যাংস অফ ওয়াসিপুর’ ছবির খুনের ধরন নকল করে হত্যা করে। অমিতের আগ্নেয়াস্ত্রের ৩২টি গুলিতে ঝাঁঝরা হয়ে গিয়েছিল পাপ্পু খান। এর পর বছর তিনেকের জন্য অন্য একটি অপরাধে জেল হয় অবিনাশ ওরফে অমিতের৷ যদিও তখনও পুলিশ তার আসল কীর্তিকলাপ জানতে পারেনি৷ চলতি বছরে মার্চ মাসে ছাড়া পেয়ে এই রবিবার একটি ব্যাঙ্ক থেকে টাকা চুরি করতে  গিয়েছিল এই কীর্তিমান৷ সেখানেই ফের ধরা পড়ে যায় সে। আর তার পরই ঝুলি থেকে গুগলের বিড়াল বেরিয়ে পড়ে৷ পুলিশকে সে এ কথাও জানিয়েছে যে, ষাটের দশকের মাঝামাঝি সময়ে মুম্বই-কাঁপানো সিরিয়াল কিলার রামন রাঘবেরও ভক্ত অমিত।  তবে আগে সে এই সিরিয়াল কিলারের কথা জানত না৷ তার এই ‘ভক্তি’ জেগেছে অনুরাগ কাশ্যপের ‘রামন রাঘব ২.০’ দেখে৷

- Advertisement -

 

 

Advertisement ---
---
-----