দিবালার গোলে মধুর হল রোনাল্ডোর ম্যাঞ্চেস্টারে ফেরার স্মৃতি

ম্যাঞ্চেস্টার: নিজে গোল পেলেন না বটে, তবে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফেরার স্মৃতিটা জয় দিয়ে উজ্জ্বল করে রাখলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ-এইচ’এর হাইভোল্টেজ ম্যাচে রোনাল্ডোর জুভেন্তাস ১-০ গোলে পরাজিত করে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডকে৷ ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেন পাউলো দিবালা৷

আরও পড়ুন: গোল না করে ইতিহাসে রিয়াল মাদ্রিদ

২০০৯’এ ম্যাঞ্চেস্টার ছাড়ার পর থেকে এই নিয়ে দু’বার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফিরলেন রোনাল্ডো৷ ২০১৩ সালে নিজের পুরনো ডেরায় পুরনো দল ম্যাঞ্চেস্টারের বিরুদ্ধে রিয়ালকে ২-১ গোলে জিতিয়েছিলেন তিনি৷ এবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে নামলেন জুভেন্তাসের হয়ে৷ যদিও ম্যাচের ফলাফলে কোনও তফাৎ হয়নি৷

প্রিমিয়র লিগে স্বস্তিজনক জায়গায় নেই মোরিনহোর দল৷ ৯ রাউন্ডের পর ম্যাঞ্চেস্টার রয়েছে লিগ টেবিলের দশম স্থানে৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে ইয়ং বয়েজের বিরুদ্ধে ৩-০ গোলে জয়ের পর থেকে সাতটি ম্যাচে মাঠে নামে রেড ডেভিলসরা৷ জয় এসেছে মাত্র ১টি ম্যাচে৷ এছাড়া চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভ্যালেন্সিয়া ও প্রিমিয়র লিগে চেলসির বিরুদ্ধে ড্র করেছে তারা৷

আরও পড়ুন: উত্তেজক চেলসি-ম্যান ইউ ম্যাচ অমীমাংসিত

অন্যদিকে সিরি-এ’র একটি ম্যাচ ড্র করা ছাড়া জুভেন্তাস চলতি মরশুমে নিজেদের সব ম্যাচ জিতেছে৷ স্বাভাবিকভাবেই জুভেন্তাসের বিরুদ্ধে মাঠে নামার আগে চাপে ছিল ম্যান ইউ৷ সেই চাপটা তারা কাটিয়ে উঠতে পারেনি ম্যাচের নব্বই মিনিটে৷ফলে সিরি-এ জায়ান্টরা নিজেদের অপরাজিত থাকার ধারাবাহিকতা বজায় রাখলেও ম্যান-ইউ পড়ে থাকে ব্যর্থতার সরণিতে৷

ম্যাচের ১৭ মিনিটে কুয়াদ্রাদোর পাস থেকে জুভেন্তাসের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন দিবালা৷ ইয়ং বয়েজের বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেছিলেন তিনি৷ সুতরাং দু’টি ইউরোপীয়ান ম্যাচে চারটি গোল করে ফেললেন দিবালা৷ রোনাল্ডোও ম্যাঞ্চেস্টারের বিরুদ্ধে গোলের সুযোগ তৈরি করেছিলেন একাধিকবার৷ তবে ডি’গেয়া দূর্ভেদ্য হয়ে দাঁড়ানোয় গোলের ব্যবধান বাড়ানো সম্ভব হয়নি জুভেন্তাসের পক্ষে৷

আরও পড়ুন: পাঁচ ম্যাচ পরে জয়ে ফিরল রিয়াল

দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে সমতা ফেরানোর উপক্রম করেছিল ম্যাঞ্চেস্টারও৷ তবে ৭৫ মিনিটে পোগবার শট পোস্টে প্রতিহত হওয়ায় হেরে মাঠ ছাড়তে হয় রেড ডেভিলসদের৷

----
-----