শ্রমিক মালিক বিরোধের জেরে বন্ধ কাঁকিনাড়ার জুটমিল

স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: শ্রমিক মালিক অসন্তোষের জেরে বন্ধ হয়ে গেল উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়া নফরচন্দ্র জুটমিলের উৎপাদন। কারখানার শ্রমিকরা নিজেরাই কারখানার উৎপাদন বন্ধ করে দেয়।

এই ঘটনায় ওই কারখানা চত্ত্বরে বৃহস্পতিবার সকালে ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ওই কারখানা চত্ত্বরে বসানো হয় পুলিশ পিকেট।

আরও পড়ুন: পণ্যের ‘জিআই’ উল্লেখ থাকবে বিমানবন্দর, রেল স্টেশনে

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, অন্যান্য দিনের মত বৃহস্পতিবার সকালেও কাকিনাড়া নফর চন্দ্র জুটমিলের শ্রমিকরা শিফটের ডিউটিতে আসেন৷ মালিকপক্ষ সেই সময় শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে ফতোয়া জারি করে৷ একই মজুরিতে অতিরিক্ত উৎপাদন দিতে হবে কারখানার সমস্ত শ্রমিকদের।

শ্রমিকরা মালিকপক্ষের প্রস্তাবে রাজি হয় না৷ এরপর তাঁরা সিদ্দান্ত নিয়ে কারখানার উৎপাদন সম্পূর্ন বন্ধ করে দেয়৷ পাশাপাশি ম্যানেজমেন্টের ঘরের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন৷ এই ঘটনায় কারখানা চত্ত্বরে ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়৷ কারখানার সমস্ত বিভাগের উৎপাদন বন্ধ করে দেয় বাকি শ্রমিকরা৷ কারখানার ভিতরেই শুরু হয় শ্রমিক বিক্ষোভ।

আরও পড়ুন: ‘Civil War’-এর পর ‘Blood Bath’ মমতার বিরুদ্ধে রাজ্যপালকে নালিশ বিজেপির

শ্রমিকদের অভিযোগ, আট ঘন্টা কাজ করে যেমন উৎপাদন দিচ্ছে তাঁরা তেমনই উৎপাদন দেবে৷ তাঁদের পক্ষে অতিরিক্ত কাজ করা সম্ভব নয়৷ মালিকপক্ষের হঠকারী সিদ্ধান্ত কোন শ্রমিকই মানবে না৷ কারখানায় শ্রমিকরা যেমন কাজ করছে তেমন ভাবেই উৎপাদন প্রক্রিয়া চালাতে হবে কারখানা কর্তৃপক্ষকে৷

ঘটনার খবর পেয়ে শ্রমিক বিক্ষোভ সামলাতে জুটমিলে আসে জগদ্দল থানার পুলিশ৷ তাঁরা বিক্ষোভকারীদের বিক্ষোভ প্রশমিত করতে বলে৷ এরপর ওই কারখানার গেটে পুলিশ পিকেট বসানো হয়৷

আরও পড়ুন: সার্কিট বেঞ্চের উদ্বোধনের আগেই বাড়ছে আইনি জটিলতা

এই কারখানায় স্থায়ী এবং অস্থায়ী মিলিয়ে প্রায় পাঁচ হাজার শ্রমিক কাজ করেন৷ শ্রমিকরা কারখানার উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়ায় এই কারখানাতে অনির্দিষ্টকালের জন্য অচলাবস্থার সৃষ্টি হল। এই দিকে জুটমিলের অচলাবস্থা কাটাতে মালিকপক্ষের সঙ্গে কারখানার শ্রমিক সংগঠনগুলি আলোচনায় বসার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ তবে এখনও জট কাটার কোন ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: অ্যারেস্টার হুক দিয়ে সফল পরীক্ষা তেজসের

Advertisement ---
-----