এবার বাজারে মিলবে কন্যাশ্রীদের হাতে তৈরি কেক

স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: কন্যাশ্রীদের স্বনির্ভর করতে তাদের দিয়ে উন্নত মানের কেক প্রস্তুত করে তা বাণিজ্যিকরণ করার উদ্যোগ নিল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন৷’দ্য গ্রেট এসকেক’ নামে এই কেকের প্রশিক্ষণ দিতে কলকাতা থেকে বিশেষ প্রশিক্ষকও নিয়ে আসা হচ্ছে।

পরীক্ষামূলক ভাবে আগামী ২১ ডিসেম্বর পূর্ব বর্ধমান জেলার হাটগোবিন্দপুর কলেজের কে-টু প্রাপক ১০জন কন্যাশ্রী মেয়েকে দিয়ে এই উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। রাজ্যের মধ্যে এই প্রথম এরকম উদ্যোগ নেওয়া হল বলে জেলা প্রশাসনের দাবি৷

বর্ধমান জেলা সর্বশিক্ষা প্রকল্পের আধিকারিক শারদ্বতি চৌধুরী জানিয়েছেন, কে-টু সুবিধা প্রাপক কন্যাশ্রী মেয়েদের নিজের পায়ে দাঁড়াতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে আগামী ২৫ ডিসেম্বর বড়দিনকে সামনে রেখেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রথম দফায় এই সফলতা পেলে তা অন্যান্য কে-টু প্রাপকদের মধ্যেও ছড়িয়ে দেওয়া হবে।

- Advertisement -

তিনি জানান, যে ১০জন মেয়েকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে তারাই পরবর্তীকালে অন্যদের প্রশিক্ষণ দিতে পারবে। তিনি আরও বলেন, উচ্চমাধ্যমিক পাশ করার পর এবং কন্যাশ্রী-২ সুবিধা পাওয়ার পর সেই টাকা দিয়ে যাতে তারা নিজেদের পায়ে দাঁড়াতে পারে সেজন্য পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব এই পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। মূলত তাঁরই উদ্যোগে এই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, কন্যাশ্রীর মেয়েরা বাজার চলতি পাম কেক, ডিজাইনার কেক, চকোলেট কেকের মত সমস্ত ধরণের কেক এবং কনফেকশনারি যাতে ঘরে বসেই তৈরি করতে পারে সেভাবেই এই প্রশিক্ষণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

শারদ্বতি চৌধুরী জানিয়েছেন, এই উদ্যোগ সফলতা পেলে তা যেমন গোটা রাজ্যের কাছে নজির ও দৃষ্টান্ত হয়ে উঠবে, তেমনই কন্যাশ্রীর মেয়েরাও নতুন কিছু করার সাহস পাবে।

Advertisement
---