কর্ণাটক নির্বাচনঃ এঁদের নিয়ে গল্প হোক!!!!

বেঙ্গালুরুঃ নির্বাচনের ডামাডোলে ঢাকা পড়েছে অনেক গল্প৷ কর্ণাটকের বেগাপল্লি,মোলকালুমুরু,মেলুকোটে-এই তিন কেন্দ্রের তিন রকম ভোট গল্প অবাক করার মতই৷

কর্ণাটক ভোটের একমাত্র সিপিএম প্রার্থী জিভি শ্রীরামা রেড্ডি৷ অনুন্নত,প্রত্যন্ত বেগাপল্লি কেন্দ্রের প্রার্থী শ্রীরাম৷ অনুন্নত সড়ক, পানীয় জলের অভাব, স্বাস্থ্যকেন্দ্রও হাতে গোনা৷ তা সত্ত্বেও শ্রীরাম রেড্ডির জনপ্রিয়তা চোখে পড়ার মত৷ স্থানীয় বাসিন্দারা জানাচ্ছেন, জনার্ধন রেড্ডি ও তার সঙ্গীরা এই কেন্দ্রে দখল নিতে চায়৷ খাদান দুর্নীতিকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত রেড্ডি ভায়েরা প্রচুর টাকার লোভও দেখায়৷ রেড্ডিদের বিশেষ কর্মীরা এসে শ্রীরামাকে বার বার হুমকিও দেয়৷ তাতেও দমেননি শ্রীরামা৷ কারণ,শ্রীরামাই সেই ব্যক্তি যিনি রেড্ডি ভায়েদের বিরুদ্ধে বিধানসভায় মুখ খোলার সাহস দেখিয়েছিলেন৷ স্থানীয়দের অভিযোগ, সিপিএম প্রার্থী থাকার কারণেই বেগাপল্লিতে আর্থিক বরাদ্দ অনেক কম৷ তাতেও শ্রীরামার জনপ্রিয়তায় ভাঁটা পড়েনি৷ ২ বার বেগাপল্লি কেন্দ্রের বিধায়ক হয়েছেন৷ ১৯৮৫ সাল থেকেই বেগাপল্লি থেকে ভোটে দাঁড়াচ্ছেন৷

পেশায় ডাক্তার, প্রথমবার ভোটে দাঁড়াচ্ছেন দলিত প্রার্থী যোগেশ বাবু৷ মোলকালুমুরুর কংগ্রেস প্রার্থী যোগেশের প্রতিদ্বন্দী বিজেপির দুঁদে নেতা ডি শ্রীরামুলু ৷ বিজেপির ঘোষণা মত, কর্ণাটকে বিজেপি জিতলে শ্রীরামুলুই হবেন উপ মুখ্যমন্ত্রী৷ প্রতিযোগিতায় কোথাও কি অসমতা? মহেশ বাবুর উত্তর-তিনি স্থানীয় নেতা,শ্রীরামালুর সঙ্গে নিজের তুলনা করতেও চান না৷ স্থানীয় মানুষ তাঁকে ভালোবাসেন৷ তিনি শ্রেণীভেদের রাজনীতি করেন না৷

- Advertisement -

কর্ণাটকের মেলুকোটে কেন্দ্র৷ যেখানে কৃষক সংগঠন স্বরাজ ইন্ডিয়ার প্রার্থীর হয়ে ভোট প্রচার করেছেন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারমাইয়া৷ স্বরাজ ইন্ডিয়ার প্রার্থী দর্শন৷ বরাবরই কৃষকদের অধিকার নিয়ে আন্দোলন করেছেন দর্শন৷ তিনি নিজেও কৃষক৷ দর্শনের বাবা পুত্তানানইয়া ছিলেন মেলুকোটের বিধায়ক৷ কয়েকমাস আগেই তাঁর মৃত্যু হয়৷ তখনই দলের সমস্ত কাজের দায়িত্ব নেন দর্শন৷ পুত্তানানইয়ার সঙ্গে বিশেষ বন্ধুত্ব মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামইয়ার৷ মেলুকোটের কংগ্রেস কর্মীদের স্বারজ ইন্ডিয়ার সমর্থনে প্রচারের কথাও বলেন তিনি৷ স্বারজ ইন্ডিয়ার ভোট প্রতীক অটোরিক্সা৷ প্রচারে দর্শনের সঙ্গে পা মেলান সিদ্দারমাইয়ার৷

Advertisement ---
---
-----