ভূস্বর্গ পেল প্রথম মুসলিম মহিলা পাইলট

শ্রীনগর: ইরাম হাবিব৷ সংবাদ মাধ্যমে এখন জায়গা করে নিয়েছে এই নামটাই৷ কেন? কারণ ৩০ বছর বয়স্ক ইরাম হলেন কাশ্মীরের প্রথম মুসলিম মহিলা পাইলট৷ আগামী মাসেই একটি প্রাইভেট এয়ারলাইনে পাইলট হিসেবে যোগ দিতে চলেছেন ইরাম হাবিব৷

এর আগে ২০১৬ সালে কাশ্মীরি পণ্ডিত তনভি রাইনা ভূস্বর্গ থেকে প্রথম মহিলা পাইলট হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন এয়ার ইন্ডিয়ায়৷ গত বছর এপ্রিল মাসে কাশ্মীরের ২১ বছর বয়সের এক ছাত্রী আয়েষা আজিজ ভারতের সর্বকনিষ্ঠ পাইলট হন৷ তবে কাশ্মীরের মুসলিম সমাজ থেকে ইরামের এগিয়ে যাওয়ার লড়াইটা সহজ ছিল না বলেই জানা যায়৷

দিল্লিতে এই মুহূর্তে কমার্শিয়াল পাইলট লাইসেন্স নেওয়ার জন্য প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন৷ ২০১৬সালে মিয়ামি থেকে ইরাম তাঁর প্রশিক্ষণ সম্পূর্ণ করেন৷

- Advertisement -

পড়ুন: বিশ্বে সর্বাধিক মহিলা পাইলট রয়েছেন ভারতেই

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারিতেই ইতিহাস সৃষ্টি করে ভারতীয় বায়ুসেনার প্রথম তিন মহিলা পাইলটদের মধ্যে অন্যতম মহিলা পাইলট অবনী চতুর্বেদী৷ স্বপ্নের উড়ানে সে ডানা মেলে মিকোয়ান গারেভিচ MiG-21 বাইসনকে সঙ্গে নিয়ে৷ গুজরাতের জামনগর এয়ারবেস থেকে অবনী MiG-21-কে নিয়ে আকাশে ওড়েন৷

২০১৬ সালের ১৮ জুন প্রথম ভারতীয় বায়ুসেনার ফাইটার স্কোয়াড্রনে তিন মহিলা পাইলটকে নিয়োগ করা হয়৷ ভারতীয় বায়ুসেনায় ইতিহাস সৃষ্টিকারী এই পাইলটরা হলেন ভাবনা কান্ত, মোহনা সিং ও অভনি চতুর্বেদী৷ প্রথম মহিলা পাইলটদের বিষয়ে বায়ুসেনার এক উচ্চপদস্থ কর্তা প্রশান্ত দিক্ষিত জানিয়েছিলেন, ‘‘ভারতীয় বায়ুসেনা এবং দেশের জন্য এটি সত্যিই একটি অভিনব কৃতিত্ব৷’’

Advertisement
---