ঠাকুরঘরে কখনই মৃত পূর্ব পুরুষের ছবি রাখবেন না

মৃত্যুর পর মৃত ব্যক্তির আত্মার শান্তি কামনা করাই হিন্দু ধর্মের রীতি। আর সেইজন্য মৃতের আত্মার শান্তি কামনায় প্রত্যেকদিন ধূপ-ফুল দেওয়া হয় মৃতর ছবির সামনে। মনে করা হয় এত তাঁর আত্মা শান্তি পায়। অনেকে আবার ঠাকুর ঘরে রাখেন মৃত ব্যক্তির ছবি। কিন্তু সেটা ঠিক নয়।

হিন্দু ঘরে মৃত ব্যক্তির ছবি ঠাকুর ঘরে রাখার রীতি রয়েছে। দেবতার সঙ্গেই সেখানে ফুল-মালা দিয়ে পুজো করা হয় তাঁরও। কারও মৃত্যু হলে তাঁকে ভগবানের আসনে বসানো হয় বলেই এই রীতি। কিন্তু বাস্তু শাস্ত্র বলছে এটা ভুল। এমনটা নাকি কখনই করা উচিৎ নয়। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে।

হিন্দু সংস্কৃতিতে এমন রীতি থাকলেও বাস্তু শাস্ত্র তা নিষেধ করছে। বলা হয়, ঠাকুর ঘরে মৃত ব্যক্তির ছবি দুর্ভাগ্য ডেকে আনতে পারে। কারণ, এক্ষেত্রে দেবতার সঙ্গে সাধারণ মানুষের তুলনা করা হচ্ছে। যা আদতে উচিৎ নয়।

- Advertisement -

তবে মৃত ব্যক্তির উদ্দেশে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করার অনেক উপায় রয়েছে। শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানে উৎসর্গ করা যায় মৃত ব্যক্তিকে। এছাড়া, পিতৃপক্ষে মৃত আত্মীয়কে শ্রদ্ধা জানানো যায়। এছাড়া ওই ব্যক্তির মৃত্যু দিনে বা তিথিতেও অবশ্যই তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করা উচিৎ।

Advertisement
-----