ট্রান্সজেন্ডারের নগ্ন ভিডিও ভাইরাল, সাসপেন্ড ASI

তিরুবানন্তপুরম: এক অ্যাডিশনাল সাব ইন্সপেক্টরকে সাসপেন্ড করল জেলা পুলিশ প্রধান এস সুরেন্দরন৷ তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, এক ট্রান্সজেন্ডারের নগ্ন ভিডিও তুলছিলেন তিনি৷

অভিযুক্ত ওই অ্যাডিশনাল সাব ইন্সপেক্টরের নাম আর শ্রীলাথা৷ অভিযোগ, তিনি এক ট্রান্সজেন্ডারের ভিডিও তুলে তা আর একজন ট্রান্সডেন্ডারের সঙ্গে শেয়ার করেন৷ তিনি সেই ক্লিপ ছড়িয়ে দেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ জেরায় একথা স্বীকার করেন তিনি৷ এরপরই অ্যাডিশনাল সাব ইন্সপেক্টর শ্রীলাথার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া হয়৷

পুলিশ সূত্রে খবর, কোনও এক অপরাধে ওই ট্রান্সজেন্ডারকে ২২ মার্চ হেপাজতে নেয় পুলিশ৷ পাকড়াও করার সময় তাঁর অবস্থা খুব একটা ভালো ছিল না৷ ফলে তাঁকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বলা হয়৷ কিন্তু ওই ট্রান্সডেন্ডার মেডিক্যাল পরীক্ষা দিতে চাননি৷ উলটে তিনি নিজেই নাকি পুলিশ স্টেশনের মধ্যে নগ্ন হন৷ পরে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও চার্জ না দিয়ে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়৷ সেই সময় কেউ ঘটনাটি ভিডিও করে নেয়৷ সেই ভিডিওই ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল সাইটে৷

- Advertisement -

তবে জেলা ট্রান্সডেন্ডার জাস্টিস বোর্ডের সদস্য সি এ গীথু বলেছেন, পুলিশ স্টেশনে প্রতারমার শিকার হয়েছিলেন ওই ট্রান্সজেন্ডার৷ হেপাজতের পর পুলিশ অফিসাররা তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন৷ বোর্ডের একজন সদস্য ঘটনাস্থলেও যান৷ কিন্তু সেই সদস্যের উপর চড়াও হন অভিযুক্ত ট্রান্সজেন্ডার৷ দুই মহিলা অফিসারের উপরও চড়াও হন তিনি৷

কিন্তু, ওই ট্রান্সজেন্ডারের অবস্থা যাই হোক, নগ্ন ভিডিও তোলা ও সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করা বেআইনি৷ তাই অ্যাডিশনাল সাব ইন্সপেক্টরকে সাসপেন্ড করে জেলা পুলিশ৷

Advertisement ---
---
-----