দিদিকে জড়িয়ে খুশির কান্না!

মুম্বই: আজ খুব আনন্দের দিন। দিদির প্রথম ছবির ট্রেলার লঞ্চ। যা দেখার পর আনন্দে চোখে জল চলে এল বোনের। হয়ত বা এদিন একটু বেশির মনে পড়ছিল মা’কে। আসলে আজকে এইদিনটির সবথেকে বেশি অপেক্ষায় ছিলেন শ্রীদেবী। কিন্তু ভাগ্যের এমন ফের, দিনটি এল কিন্তু মানুষটি হারিয়ে গেল চিরতরে। মা’কে ছাড়ায় আজ ‘ধড়ক’ ট্রেলার লঞ্চে উপস্থিত থাকলেন জাহ্নবী ও খুশি।

তিন মিনিটের ট্রেলারে সারপ্রাইজ প্যাকেজের মতো ধরা দিলেন অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুর। চোখের চাউনি, কথা বলার ধরন প্রতিটা ফ্রেম বলছে বলিপাড়ায় রাজ করতে এসেছেন জাহ্নবী। তবে এসবের ক্রেডিট মা’কেই দিলেন জানু। ট্রেলার লঞ্চিংয়ে এসে জানান, ” অভিনয় নিয়ে সেরা টিপসটি তাঁকে মা দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ” কঠর পরিশ্রম আর প্রতিটি ইমোশল ফিল করবে। যা আমি পালন করে চলেছি।”

আরও পড়ুন: ‘সানি যা পারে আমি তা করতে পারব না’, বিস্ফোরক রাখি

- Advertisement -

সত্যিই কথা একদম। ধড়ক’ ছবির শ্যুটিং চলাকালীন আচমকাই সবকিছু ছেড়ে চলে যান শ্রীদেবী। কিংবদন্তী অভিনেত্রীকে খুইয়েছিল বলিউড। আর জাহ্নবী হারিয়েছিলেন তাঁর মা কে৷ শ্যুটিং বন্ধ রেখে মায়ের শেষকৃত্যে উপস্থিত ছিলেন। অভিনয় জগতে পা রাখার আগেই জাহ্নবীর পেশাদারিত্ব দেখে অবাক হয়ে গিয়েছিল গোটা বলিপাড়া। মায়ের প্রয়াণের কিছুদিন পরই ফের চলে আসেন শ্যুটিং ফ্লোরে। তারপর বাকি ছবিটা শ্যুট করেন৷ ট্রেলার দেখলে কেউ ধরতে পারবে না কতটা কষ্টের মধ্যে দিয়ে গিয়েছেন জাহ্নবী। ট্রেলার দেখে ইতিমধ্যেই অনেকেই জাহ্নবীর প্রশংসা করেছেন। কেউ বা তাঁর মধ্যে শ্রীদেবীর ছায়া দেখেছেন। আসলে জাহ্নবী যে লম্বা রেসের ঘোড়া তা বলছে তাঁর পগরতিটি পদক্ষেপ।

এদিন বোন খুশি ছাড়াও ‘ধড়ক’-এর ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠানে হাজির ছিল বনি কাপুর, সঞ্জয় কাপুর ও দাদা হর্ষবর্ধন কাপুর। এছাড়া ছিলেন ঈশান খট্টর।

আরও পড়ুন: ‘ধড়ক’র ট্রেলারে নতুন প্রজন্মের রোমিও অ্যান্ড জুলিয়েট

সিনেপর্দার পাশাপাশি ‘ভোগ’ এর কভার শ্যুট করে ফেলেছেন জাহ্নবী কাপুর। আবার শোনা যাচ্ছে সঞ্জয় লীলা বনশালি ছবিতে গ্ল্যামার সঙ্গে মিশছে ফ্লেভারে শ্রীদেবীর এসেন্স। বলিপাড়ার জোর গুঞ্জন, সঞ্জয় লীলা বনশালির আগামী ছবিতে অভিনয় করতে চলেছেন খুশি-জাহ্নবী। কিছুদিন আগে, পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালির বাড়িতে গিয়েছিলেন শ্রীদেবীর কন্যারা। পরিচালকের বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যাওয়ার সময় দুই বোনের ছবি ক্যামেরা বন্দি হয়। শ্রীকন্যাদের সঙ্গে সঞ্জয়ের এই সাক্ষাৎ ঘিরেই এখন জল্পনা তুঙ্গে। মনে করা হচ্ছে, বনশালির আগামী ছবিতে দেখা যাবে খুশি ও জাহ্নবী। কিন্তু এখন পুরোটাই উড়ো খবর। শিলমোহর লাগেনি পরিচালকের।

Advertisement
---