বিপজ্জনক বাড়ি ভাঙতে পদক্ষেপ পুরসভার

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পুরসভার নির্দেশ ছিলই৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও বিপজ্জনক বাড়ি ভাঙতে গিয়ে বাসিন্দাদের বাধা এসেছিল৷ এর পরেও কাজ জারি রাখা হয়৷ ভেঙে ফেলা হয়েছে সেই বাড়ির কিছু অংশ৷

৮০, বেন্টিক স্ট্রিটের বাড়িটি বিপজ্জনক হিসেবে আগেই চিহ্নিত করা হয়েছিল৷ পুরসভার তরফে বিপজ্জনক নোটিসও আগেই ঝোলানো হয়েছিল৷ অভিযোগ, বাড়ি মেরামতির কোনও কাজই করেনি বাড়ির মালিক৷ মঙ্গলবার পুর কর্মীরা গেলে বাড়িটি ভাঙতে নিষেধ করা হয়৷ মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, বাড়ির মালিক দ্রুত মেরামতি করবে বাড়িটি বলে পুরসভাকে জানিয়েছেন৷

পুরসভা সূত্রে খবর, প্রথম তলটি ব্যবসায়িক কাজে ভাড়া দেওয়া, দ্বিতীয় তলে বাড়ির মালিক বসবাস করেন আর তৃতীয় তলটিও ব্যাবসায়িক কাজে ব্যবহার করা হত৷ দেওয়ালে গভীর ফাটল দেখেও দীর্ঘদিন ধরে ওই বিপজ্জনক পরিস্থিতিতেই চলছিল কাজ৷ ওপর থেকে চাঁই ও ভেঙে পড়েছে কয়েকবার৷ এদিন ওই তৃতীয় তলের খানিকটা অংশ ভাঙতে গিয়ে বাড়ির মালিকের বাধার মুখে পড়েন পুর কর্মীরা৷

- Advertisement -

কিন্তু বাড়ির মালিকের বাধার মুখে পড়ে পিছু হটেননি পুরকর্মীরা৷ স্থানীয় পুলিশের সঙ্গে আলোচনা করে বাড়িটির বিপজ্জনক অংশটি ভেঙে দেন তারা৷ তবে বাড়ির মালিকের তরফে জানানো হয়েছে দ্রুত তা সারাইয়ের কাজ শুরু হবে৷

তবে শুধু এই বাড়িটিই নয়, মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, বিপজ্জনক হিসেবে শহরের মোট ৬৫টি বাড়িকে চিহ্নিত করেছে পুরসভা৷ পুরসভার তরফে এই বাড়ির মালিকদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে৷ বিপজ্জনক হিসেবে চিহ্নিত আরও ২১২টি বাড়িকে ৪১২/এ ধারায় নোটিশ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে একটা একটা করে বিপজ্জনক বাড়ির অংশগুলি ভাঙবে কলকাতা পৌরনিগম।

Advertisement
-----