অভিনয়ের সঙ্গে পড়াশোনাটাও চালিয়ে যেতে চায় সকলের প্রিয় টিনটিন

সুভাষ বৈদ্য,কলকাতা: টেলিভিশনের জনপ্রিয় মুখ৷ ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি সিনেমাতেও কাজ করে ফেলেছে বছর দশের সামন্তক দ্যুতি মৈত্র৷ নাম শুনে মুখটা মনে নাও পড়তে পারে৷ কিন্তু যদি বলা হয় জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ভানুমতীর খেল’-এর টিনটিনের কথা৷ আর নিশ্চয়ই চিনতে কোনও সমস্যা হবে না৷

টিনটিন চরিত্রে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে সামন্তক৷ শ্যুটিংসেটেও একেবারে সকলের চোখের মনি৷ স্বভাবে যেমন মিষ্টি তেমন শান্তশিষ্টও৷ পড়াশোনাতেও বেশ ভালো সামন্তক৷ স্কুলের পরীক্ষার জন্য বেশ কিছুদিন ছুটিও নিয়েছিল পরিচালক দাদার কাছ থেকে৷ কিন্তু পরীক্ষা পিছিয়ে যাওয়ায় ফের সেটে ফিরে গিয়েছে৷ সেটে ফিরতেই শুরু হইহই করে কাজ৷ বয়স সবেমাত্র দশের কোঠায় পা রেখেছে৷ কিন্তু এরইমধ্যে ১১টি সিনেমা, ১১টি মেগা সিরিয়ালে অভিনয় করে ফেলেছে সে৷ সঙ্গে ১০টি টিভিসিতেও দেখা গিয়েছে তাকে৷ শুধু বাংলা নয় ইংরাজি সিনেমাতেও কাজ করা হয়ে গিয়েছে তার৷

আরও পড়ুন: মোমের দীপিকা

- Advertisement -

সামন্তকের ডেবিউ ফিল্ম ‘আ নিউ লাইফ’ই ইংরাজি ছবি৷ বাংলায় গুডনাইট সিটি, হ্যাপি বার্থ ডে, মাছের ঝোল, মায়াজালের খেলা, চতুরঙ্গের মত ছবিতে দেখা গিয়েছে তাকে৷ পাশাপাশি প্রচুর টেলিভিশন সিরিয়ালেও কাজ করেছে এই খুদে তারকা৷ আপাতত ব্যস্ত ভানুমতীর খেল নিয়ে৷ এরআগে কানামাছি, দূর্গা, রূপকথা, কিরণমালা, মনের ময়ুর, ঠিক যেন লাভ স্টোরি, মন নিয়ে কাছাকাছিতে কাজ করেছে সে৷

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার সোনারপুরের বাসিন্দা সামন্তক আড়াই বছর বয়স থেকে অভিনয় করছে৷ পাড়ার ‘আগামী’ নাটকের দলে যোগ দেয় সে৷ তখন ভালোভাবে কথাটুকু বলতে পারত না৷ দাদুর হাত ধরেই নাটকের সঙ্গে পরিচয়৷ সামন্তকের বাড়িতেই চলত নাটকের মহরা৷ ছোটবেলা থেকেই নাটকের পরিবেশে মানুষ৷ প্রথম অভিনয় ‘সম্পর্ক ও জিজ্ঞাসা’ নাটকে৷ সেই পথ চলা শুরু৷ তিন বছর বয়সেই চলচ্চিত্রে ডেবিউ৷ ‘মায়াজালের খেলা’ ছবিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মত অভিনেতার সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করেছে৷ মাছের ঝোল ও গুডনাইট সিটিতে কাজ করেছে ঋত্বিক চক্রবর্তী, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের সঙ্গে৷

আরও পড়ুন: হ্যাপি পিল-এর ‘প্রিয়তমা’

সামনেই মুক্তি পেতে চলেছে সামন্তকের আগামী ছবি অর্জুন দত্ত পরিচালিত ‘অব্যক্ত’৷ আদিল হোসেন ও অর্পিতা চট্টোপাধ্যায় অভিনীত এই ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করছে সামন্তক৷ সোনারপুর শিশু নিকেতন স্কুলের ক্লাস ফাইভের এই ছাত্র পড়াশোনার পাশাপাশি চুটিয়ে নাটক, বাংলা ও ইংরেজি সিনেমা, একের পর এক টিভি সিরিয়ালে কাজ করে চলেছে৷

তবে শুধু অভিনয় নয়৷ পড়াশোনাটাও মন দিয়ে করতে চায় সামন্তক৷ নিজেই বলল সে কথা৷ সামন্তকের কথায়, ‘‘অভিনয়ের সঙ্গে পড়াশোনা করে ভালো রেজাল্ট করতে চাই৷’’ ইতিমধ্যেই ‘ACADEMIC SCIENCE CULTURE AND PROMOTION SOCIETY’ আয়োজিত বিজ্ঞানভিত্তিক বৃত্তি পরীক্ষায় দক্ষিণ চব্বিশ পরগনায় দ্বিতীয় স্থান লাভ করেছে। আগামী ৩০শে জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে স্কুলের হাফ ইয়ার্লি পরীক্ষা৷ সেটেই বই নিয়ে আসছে তাই৷ একটু ব্রেক পেলেই বসে পড়ছে বই খুলে৷

Advertisement
---