কোয়েনিং সলিউশন: বাড়বে উদ্যোক্তাদের কর্মদক্ষতা

কোয়েনিং সলিউশন বদলে দিতে চলেছে উদ্যোগপতিদের কর্মক্ষমতা৷ এটি মূলত তথ্যপ্রযুক্তি সহায়ক একটি মাধ্যম৷ উদ্যোক্তাদের ইন্টারনেট দক্ষতা ও কর্ম দক্ষতা বাড়াতেই প্রবর্তিত হয়েছে এই বিশেষ কোর্স৷
তথ্য অনুযায়ী, নয়াদিল্লির একটি সংস্থা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তত্ত্বাবধানে আর্ন্তজাতিকস্তরে নজরদারির জন্য ২০১০ সালে সফটওয়্যারের বিশেষ প্রশিক্ষণ দিত৷ তারাই নতুনভাবে বাজারে নিয়ে এসেছে এই কোয়েনিং সলিউশন৷ তাদের আশা আরও অনেক বেশি পরিমানে ওয়েব উদ্যোক্তারা এই কোর্সটি বেছে নেবেন৷ তবে, এই কোর্সের প্রশিক্ষণ আপাতত কেবল মাত্র দিল্লি ও দুবাই থেকেই দেওয়া  হবে৷
এ বিষয়ে কোয়েনিং সলিউশনের সিইও এবং প্রতিষ্ঠাতা রোহিত আগরওয়াল জানিয়েছেন, আইটি শিল্প এই মুহুর্তে যথেষ্ট উন্নত তা সত্ত্বেও এই কোর্সের প্রবতর্ন করা হয়েছে বিশেষ করে নন-আইটি প্রোফেশনাল লোকেদেরে অতৃপ্ত চাহিদার কথা মাথায় রেখে৷ এই বিশেষ কোর্সের ফলে উদীয়মান উদ্যোক্তারা প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন এবং এতে ভারতের শিল্পের পরিকাঠামোও উন্নত হবে৷
এছাড়াও ব্যাঙ্গালোরের কোওয়ার্কিং স্পেস যা্গা আগামী এক বছরের মধ্যে যা্গা স্টাডি নামক একটি প্রশিক্ষণ চালু করতে চলেছে৷ এই স্টাডিতে মুলত উদ্যোগপতিদের প্রযুক্তিগত দক্ষতা বাড়ানোর শিক্ষা দেওয়া হবে৷ এই কোর্সের মুল্য হবে প্রায় ১.২ লক্ষ টাকা৷
এমাসের প্রথম দিকেই চালু হয়েছে কোয়েনিং সলিউশনের কোর্সটি৷ এতে ওয়েব ডিজাইনিং, অ্যাডোব ফটোশপ এবং ওয়েব মার্কেটিংয়ের জন্য সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইসেশন ও পে পার ক্লিক প্রভৃতি বিষয়ে মৌলিক ধারণা সম্পর্কে শিক্ষা দেওয়া হবে৷ এই বিশেষ কোর্সের জন্য খরচ পড়বে প্রায় ৩ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা৷
গ্লোবালাইজেশনের যুগে উদ্যোক্তাদের এই বিশেষ কোর্সগুলি যে ভালই সহায়তা করবে তা বলাই যায়৷ এতে করে শুধু উদ্যোক্তাদের নিজেদের ব্যাবসার উন্নতি হবে  তা নয়, দেশের অর্থনীতিরও সার্বিক উন্নতি ঘটবে৷

Advertisement ---
---
-----