কুলদীপকে সামলানো ভয়ঙ্কর: বিরাট

ম্যাঞ্চেস্টার: কিংবদন্তি সচিন তেন্ডুলকর থেকে সর্বকালের সেরা অজি স্পিনার শেন ওয়ার্ন, সময়ে সময়ে কুলদীপের প্রশংসা করেছেন অনেকেই৷ অজি কিংবদন্তি ভারতীয় স্পিন অস্ত্রের শুরুর দিনেই মন্তব্য করেছিলেন বিশ্বের সেরা স্পিনার হওয়ার প্রতিভা রয়েছে কুলদীপের মধ্যে৷ ইংল্যান্ড সফরের শুরুতেই কুলদীপের বল দেখে ‘ভয়ঙ্কর’ শব্দটি বেরিয়েছে অধিনায়ক কোহলির মুখ থেকে৷ মঙ্গলবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টি-২০ ম্যাচে সত্যিই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছিলেন কুলদীপ৷ ভারতীয় স্পিনারের সামনেই একপ্রকার মুখ থুবড়ে পড়ে ইয়ান মর্গ্যানবাহিনী৷

ওপেনার রয় আউট হওয়ার পর একদিকে বাটলার উইকেট সামলে রাখলেও অন্যদিকে কুলদীপ, উমেশ যাদবদের সামনে দাঁড়াতে পারেননি কোনও ব্রিটিশ ব্যাটসম্যান৷ চার ওভার বল করে মাত্র ২৪ রান দিয়ে ব্রিটিশ ব্যাটিংয়ের গুরুত্বপূর্ণ পাঁচটি উইকেট নিজের ঝুলিতে পোরেন কুলদীপ৷

ইংল্যান্ড অধিনায়ক মর্গ্যান, ফার্স্ট ডাউনে ব্যাট করতে আসা হ্যালস, জো রুট এবং জনি ব্যায়ারিস্টোকে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখান কুলদীপ৷ এর মধ্যে শূন্য রানে আউট হন বেয়ারস্টো এবং জো রুট৷ ৮ এবং ৭ রান করে ফিরে যান হ্যালস এবং ব্রিটিশ ক্যাপ্টেন মর্গ্যান৷ এরপর একা লড়াই চালান বাটলার৷ তবে ১৮ নম্বর ওভার বল করতে এসে বাটলারকেও থামিয়ে দেন কুলদীপ৷ ৪৬ বলে ৬৯ রানে বিরাট কোহলির হাতে ধরা পড়েন ব্রিটিশ ওপেনার৷ ইনিংসটিতে আটটি ৪ এবং দু’টি ৬ মারেন বাটলার৷ শেষপর্যন্ত ২০ ওভারে ১৫৯ রান তোলে ইংল্যান্ড৷

- Advertisement DFP -

১৬০ রানে সহজ লক্ষ্য ১.২ ওভার বাকি থাকতে ৮ উইকেটে হাতে রেখেই পার করে বিরাটবাহিনী৷ ম্যাচের পর অধিনায়ক কোহলি কুলদীপের প্রশংসা করে বলেন, ‘ যে কোনও পিচের জন্যই কুলদীপ কার্যকরী৷ তবে পিচে টার্ন থাকলে কুলদীপ সামলানো যে কোনও ব্যাটসম্যানের পক্ষে ভয়ঙ্কর৷’

Advertisement
----
-----