‘বিশ্বের সেরা টেকনিক রয়েছে বিরাটের’

লন্ডন: ৬৭টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৬টি ডাবল সেঞ্চুরির মালিক তিনি৷ ৭ বছরের টেস্ট ক্রিকেট কেরিয়ারে একের পর এক রেকর্ড ভেঙেছেন গড়েছেন৷২০১১ সচিনের পর ভারতীয় ব্যাটসম্যান হিসাবে টেস্ট ব়্যাংকিংয়ের শীর্ষে উঠে এসেছেন ‘ক্যাপ্টেন হট’৷ বিরাট কোহলি কার্যত বাইশগজ শাসন করছেন৷ শেষ কয়েক দিনে ভারত অধিনায়কের প্রশংসা করেছেন সচিন, মুস্তাক মহম্মদ , মহেন্দ্র সিং ধোনির মত কিংবদন্তিরা৷ এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল আর এক কিংবদন্তি অজি ক্রিকেটারের নাম৷ প্রাক্তন অজি অধিনায়ক স্টিভ ওয়া বিরাটের প্রশংসা করে বলেন, ‘বিশ্বের সেরা টেকনিক রয়েছে বিরাটের কাছে৷’

আরও পড়ুন:বিপুল অঙ্কে নির্বাচকদের বেতন বাড়াল বিসিসিআই

১৯৯৯ বিশ্বকাপ জয়ী অজি ক্যাপ্টেন বিরাটের প্রশংসা করে বলেন, ‘বিশ্বের যে কোনও মাঠে ভালো পারফর্ম করার প্রতিভা রয়েছে বিরাটের৷ আমার মনে হয় বিশ্বের সেরা টেকনিক রয়েছে বিরাটের কাছে ৷ এবি ডি’ভিলিয়ার্স এবং বিরাট কোহলি দুজনেরই ব্যাটিং ক্লাস অসাধারণ৷ এখন এবি নেই তাই নিঃসন্দেহে বিরাটই সেরা৷’ ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারত প্রথম টেস্ট হারলেও ব্যক্তিগত মাইলস্টোন গড়ে ফেললেন বিরাট কোহলি৷ এজবাস্টন টেস্টে দুরন্ত ব্যাটিংয়ের সুবাদে আইসিসি’র বিশ্বব়্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বরে উঠে এলেন ভারত অধিনায়ক৷ এতদিন টেস্টের সেরা ব্যাটসম্যান ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ৷ স্টিভের থেকে রেটিংয়ে পাঁচ পয়েন্ট বেশি পেয়ে এক নম্বরে উঠে এলেন কোহলি৷

- Advertisement -

আরও পড়ুন:ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি আটকাতে বল ছুঁড়ে বাউন্ডারিতে পাঠালেন বোলার

এজবাস্টন টেস্টের পর রেটিংয়ে ৩১ পয়েন্ট পেয়েছেন বিরাট৷ যার ফলে টপকে গেলেন স্টিভ স্মিথকে৷ শেষ ৩২ মাস ধরে টেস্টের শীর্ষস্থানে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান স্মিথ৷ ২০১৫ ডিসেম্বরে টেস্টের ক্রমতালিকায় শীর্ষস্থানে পৌঁছন স্টিভ৷বল বিতর্কে জড়িয়ে ১ বছরের জন্য ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত হয়েছেন প্রাক্তন অজি ক্রিকেটার স্টিভ স্মিথ৷ স্বভাবতই তাঁকে টপকাত কোনও অসুবিধে হয়ে কোহলির৷ বিষয়টির উল্লেখ করে স্টিভ ওয়া বলেন, ‘স্টিভ স্মিথ সবচেয়ে ক্ষুধার্ত ব্যাটসম্যান৷ কিন্তু একবছরের জন্য ক্রিকেটের বাইরে চলে গিয়েছে ও৷ এই মুহূর্তে কোহলির টক্করের কেউ নেই৷’

এরপর ব্রায়ান লারা , সচিন তেন্ডুলকরের মত ক্রিকেটারদের সঙ্গে বিরাটের তুলনা করে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক বলেন, ‘ লারা, সচিন, মিয়াঁদাদ, ভিভের মত বড় মঞ্চে দারুণ পারফর্ম করতে মুখিয়ে থাকে বিরাট৷ ইংল্যান্ড সফর ওর জন্য এই সুযোগটাই তৈরি করে দিয়েছে৷’

আরও পড়ুন:গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যু প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়নের

প্রথম টেস্টে ইংরেজ পেসারদের সামনে ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ মুখ থুবড়ে পড়লেও দুটি ইনিংসেই রান পেয়েছেন বিরাট৷ প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ২৮৭ রানের বিরুদ্ধে একা লড়াই করেন ভারত অধিনায়ক, ১৪৯ রানের একটি অনবদ্য ইনিংস খেলে ভারতকে লড়াইয়ে রাখেন৷

এজবাস্টনে জয়ের জন্য চতুর্থদিন ভারতের দরকার ছিল ৮৪ রান৷ হাতে পাঁচ উইকেট৷ ক্রিজে আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান ক্যাপ্টেন কোহলি ও দীনেশ কার্তিক৷ ভারতীয় পিচে এই রানটা ব্যাটসম্যানদের জন্য বিশেষ সমস্যা না-হলেও ইংল্যান্ডের আবহাওয়া ও পিচ কিন্তু বোলারদের মনে আশার সঞ্চার করে৷ ১৮৫ মিনিট ক্রিজে থেকে ৫১ রানে থেমে যায় বিরাটের লড়াই৷ তবে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও দলের সর্বোচ্চ স্কোরার ক্যাপ্টেন কোহলি৷

আরও পড়ুন:ছেলের কাছে বাবার হার, কলকাতা লিগে বিধ্বস্ত মহামেডান

Advertisement ---
---
-----