ভারতের অপৌরুষেয় সংস্কৃতির শিকড় সন্ধানে ঋতবাক

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ওয়েব দুনিয়া থেকে এ বার আগমন ঘটল ছাপা অক্ষরের দুনিয়ায়৷ আর, এ ভাবেও, এক প্রকার তাক লাগিয়ে দিল ঋতবাক!

২০১৪-য়-ও, কার্যত তাক লাগিয়ে ওয়েব দুনিয়ায় আত্মপ্রকাশ করেছিল ঋতবাক! আর, সেখান থেকেই যেন বনস্পতির স্বপ্নে বুঁদ হয়ে, বাংলা সাহিত্যের ডালপালায় ডানা মেলে দিচ্ছিল এই কিশলয়৷ এবং, যে ডানায় ভর দিয়ে এ বার ছাপার অক্ষরে ঘটল তার আবির্ভাব!

সমাজের সঙ্গে প্রবহমান মনন প্রতিফলিত হয় সাহিত্যের আঙিনায়৷ আর, ওই প্রবাহে অবগাহনের জন্য কোনও কালেই অনুরাগীদের অভাব সেভাবে হয়নি৷ যে কারণেও যেন ক্রমে ডানা আরও মেলে দিয়েছে ঋতবাক! যে কারণেও আবার, বনস্পতি হয়ে ওঠার পথে অভাব হয়নি সহযাত্রীর৷ এবং, যে সব সহযাত্রী পা মিলিয়েছেন ওই পথে, যে সব সহযাত্রী পা মিলিয়ে চলেছেন ওই পথে, তাঁদের সাহচর্যেও বনস্পতি হয়ে ওঠার পথে ক্রমে এগিয়ে চলেছ ঋতবাক৷

- Advertisement -

সব মিলিয়ে, প্রত্যয় যেন বিবর্তিত হয়ে চলেছে অন্যতম প্রয়াসে৷ এবং, তার জেরেই, ওয়েব দুনিয়া থেকে এ বার মুদ্রণ সংস্করণে ঋতবাকের আত্মপ্রকাশ ঘটল কলকাতা বইমেলাকে লক্ষ্য রেখে৷ যদিও, এই সংখ্যায় প্রকল্প, কল্প এবং অণুকল্প রূপে যে তিনটি বিভাগে রয়েছে মিশ্রধর্মী বিভিন্ন লেখা, সে সবের অধিকাংশ ওয়েব সংস্করণের বিভিন্ন সংখ্যায় প্রকাশ পেয়েছে৷ তবে, সে সবের মধ্যে ব্যতিক্রমী হিসেবে নৃসিংহপ্রসাদ ভাদুড়ির ‘বৈবাহিকী মন্ত্রণা’, সুজিত আচার্যের ‘শ্রেণিসংগ্রামের নিত্যতা ও সম্রাট অশোক’, সুস্মিতা বসু সিংয়ের ‘অকুণ্ঠিতা’ এবং আইভি চট্টোপাধ্যায়ের ‘শ্রীকৃষ্ণকথা’ উল্লেখযোগ্য বলে মনে করছে ওই সব সহযাত্রীর কোনও কোনও অংশ৷ তেমনই, ওই সহযাত্রীদের কোনও কোনও অংশের তরফে জানানো হয়েছে, অধ্যাপক বিশ্বনাথ রায়ের লেখা মুখবন্ধ ফের মনে করিয়ে দেয় যে, শিকড় সন্ধানই ঋতবাক এর লক্ষ্য৷

যে কারণে, ওই সব সহযাত্রীর কোনও কোনও অংশ এমনও মনে করে যে, ওই লক্ষ্য, ভারতের অপৌরুষেয় সংস্কৃতির শিকড়৷ এই সময়ের আর্থ-সামাজিক-রাজনৈতিক প্রেক্ষিতে তার উৎস সন্ধান, সাহিত্যের সঙ্গে মননশীলতার অন্য ধারাগুলির ক্ষেত্রেও পরম কর্তব্য৷ কলকাতা বইমেলায় ‘এই সহস্রধারা’ (স্টল নম্বর: ৩৯৪) এবং ‘গ্রাফিত্তি’ (লিটল ম্যাগাজিন প্যাভিলয়ন)-তে প্রথম দিন থেকেই ঋতবাক-এর দেখা মিলছে৷ গত ২৫ জানুয়ারি, সোমবার, উত্তর কলকাতার শোভাবাজার রাজবাড়ির ঠাকুরদালানে, ঋতবাকের মুদ্রণ সংস্করণের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন নৃসিংহপ্রসাদ ভাদুড়ি৷ ওই অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন রামকৃষ্ণ ভট্টাচার্য, বিশ্বনাথ রায়, সুজিত আচার্য৷

_________________________________________________________________

আরও খবর:
(০১) বঙ্গ-জোট জল্পনায় স্বরাজ অভিযানের বিকল্প রাজনীতি
(০২) ক্রিমিন্যাল কেসে অভিযুক্তের সম্মানে উজ্জ্বল হয় ইমেজ!
(০৩) জিএনএম-এর অবলুপ্তি-অবমূল্যায়নের শিকার নার্সরা!
(০৪) রাজনীতির শিকারে বহিষ্কৃত তিন ইন্টার্ন সহ এক পড়ুয়া!
(০৫) প্রশিক্ষণের পর কোন নামে ডাকা হবে এই ‘ডাক্তার’দের!
(০৬) বাঙালি বলে নেতাজিকে হতে দেওয়া হয়নি প্রধানমন্ত্রী!!
(০৭) রাজভবন-নবান্ন অভিযানে শামিল হচ্ছেন আশা কর্মীরা
(০৮) সোনালি দিনের সোনাগাছি এখন মন্দ সময়ের উপাখ্যান
(০৯) শরীরচর্চা করতে করতে-ই ছোট হয়ে যাচ্ছে ফেস-বুক!
(১০) ক্লাস নাইনের পড়ুয়াও ভাড়ায় খোঁজে সোনাগাছির ঘর!
(১১) গান্ধীবাদের জেরে বহু পুরুষ জানেন না সেক্স-ফোরপ্লে!
(১২) তসলিমা আদর পাননি বলে বঙ্গ-কমিউনিস্টরা ফেক!
(১৩) পথ-প্রান্তিক শিশুদের জন্য কলকাতায় এখন টয় ব্যাংক
(১৪) বি.এ.-ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রীও সোনাগাছির যৌনকর্মী!
(১৫) গৌরীকে আনতে অন্তর্জাল মুক্ত হচ্ছেন ফেসবুক বন্ধুরা

_________________________________________________________________

Advertisement
---