সুস্বাদু বিরিয়ানির কলকাতার সেরা 6 ঠিকানা

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বিরিয়ানির নাম শুনলে নিজের মনকে সংযত রাখতে পারে এমন বাঙালীর সংখ্যা হাতে গোনা৷ আজকাল বাঙালী একটু স্বাস্থ্য সচেতন হয়েছে বটে কিন্তু খাদ্যরসিক বাঙালী বিরিয়ানির ব্যাপারে অন্তত খুব একটা ক্যালোরির হিসাব করেনা৷ মোঘল আমল শেষ হলেও এই মোঘলাই খানায় মন মজেছে বাঙালীর৷

আরসালান
আরসালানের বিরিয়ানি টক্কর দিতে পারে ভারতের যে কোনও জায়গার বিরিয়ানির সঙ্গে৷ এখানকার বিরিয়ানি শুধু জনপ্রিয় নয়, হলফ করে বলা যায় এই বিরিয়ানি খেলে আপনার শারীরিক কোনও গোলযোগ হবে না৷ পার্ক সার্কাস, পার্ক স্ট্রিট, হাতিবাগান৷

- Advertisement -

সিরাজ
১৯৭০ সালে পার্ক সার্কাসের মোড়ে প্রথম শুরু হয় সিরাজের বিরিয়ানি৷ বিরিয়ানির নাম শুনলেই প্রথমেই সিরাজের নাম মনে পড়ে যায়৷ বলা যায়, সিরাজের দৌলতেই কলকাতায় বিরিয়ানির এত রমরমা৷ দুবাইয়ে এর শাখা আছে৷ প্রবাসী এমন অনেকেই আছেন যারা কলকাতায় এলে ফেরার সময় সিরাজ থেকে বিরিয়ানি প্যাক করিয়ে নিয়ে যান৷  

আমিনিয়া
১৯৪৭ সালে কলকাতার নিউ মার্কেটে আমিনিয়ার আবির্ভাব৷ কলকাতা বিরিয়ানির স্বাদ পেতে আমিনিয়ায় প্রবেশ অত্যন্ত প্রয়োজন৷ এখানকার বিরিয়ানি আওয়াধি বিরিয়ানি৷ নিউ মার্কেট ছাড়াও, গোলপার্ক, ফড়িয়াপুকুর, শ্যামনগরে আমিনিয়ার শাখা আছে৷

নিউ আলিয়া
১৯৬৬ সাল থেকে নিউ আলিয়ার যাত্রা শুরু৷ এখানকার বিরিয়ানি একেবারে মুঘলাই ঘরানার বিরিয়ানি কিন্তু তাতে কলকাতার ছোঁয়া আছে৷ বিরিয়ানির স্বাদ বজায় রাখতে এখনও বিহার থেকে ঘি আনানো হয়৷ ঝাঁ-চকচকে রেস্তোরা না হলেও শুধু স্বাদের জোড়ে এখনও রমরমিয়ে চলছে নিউ আলিয়া৷  

রহমানিয়া
১৯৪৮ সালে রহমানিয়ার আগমন৷ আওয়াধি, আখনি, মুঘলাই, হায়দরাবাদী নয়, রহমানিয়ার বিরিয়ানি একেবারে আপাদমস্তক কলকাতা বিরিয়ানি৷ চাল, মাংস ও ভাতের অনবদ্য মেলবন্ধন৷

আলিবাবা
নিউ আলিয়া, আমিনিয়া, সিরাজ , রহমানিয়ার থেকে বয়সে অনেক ছোট হলেও আলিবাবার বিরিয়ানি কিন্তু কলকাতায় যথেষ্ট সুনাম অর্জন করেছে৷কলকাতার বেশ অনেক জায়গায় তাঁদের আউটলেট খোলা হয়েছে৷