‘নিষিদ্ধপল্লী’ এই নামটি শুনলেই অনেকেই নাক সিটকান! যদি সেই সমস্ত জায়গা চেনা থাকে তাহলে অনেকেই তা এড়িয়ে চলেন। আর যারা চেনেন না! না বুঝে শুনেই ঢুকে পড়েন এই সমস্ত এলাকায়। ঢুকে পড়লেন তো গেলেন…!!! সহজে রেহাই মিলবে না। ছলাকলায় যেভাবে হোক যৌনকর্মীরা আপনাকে অন্য ‘রাজ্যে’ নিয়ে যেতে চাইবেন। আর যদি কোনওভাবে তাঁদের প্রলোভনে পা দিয়ে দেন তো গেলেন। মুখ লুকানোর আর জায়গা পাবেন না। যদি সেই জায়গাগুলি চেনা না থাকে তাহলে অবশ্যই এই প্রতিবেদনটি আপনার কাজে আসবে। আপনার জন্যে রইল শহরের এমনই পাঁচটি নিষিদ্ধপল্লী। যেখানে সূর্য ডুবতেই শুরু হয় ব্যবসা।

সোনাগাছি-  শহরের সবথেকে বড় যৌনপল্লী সোনাগাছি। শুধু শহর বললে ভুল হবে! এশিয়ার সবথেকে বড় হচ্ছে এই নিষিদ্ধপল্লী। শোভাবাজার থেকে সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ ধরে একটু এগিয়ে গেলেই এই এলাকা। এই অঞ্চলের কয়েকশো বহুতল প্রায় ১০,০০০ যৌনকর্মী বসবাস করেন। সন্ধ্যা নামতেই এইম এলাকায় বাড়তে থাকে ভিড়। তা চলে গভীর রাত পর্যন্ত।

Advertisement

red-light-allahabad

কালীঘাট-  চেতলা ব্রিজ এবং কালীঘাট মন্দির সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত এই নিষিদ্ধপল্লী। শহরের অন্যতম জনপ্রিয় এই এলাকা। দিন- রাত সবসময় এই এলাকায় চলে ব্যবসা। বিভিন্ন ধরণের মানুষজনের যাতায়াত রয়েছে এই এলাকায়। জনপ্রিয় হওয়াতে এই এলাকায় পুলিশি নজরদারিও বেশী।

mumbai-red-light

হাড়কাঁটা গলি- শহরের অন্যতম প্রাচীন নিষিদ্ধপল্লী এটি। অনেকেরই অজানা। মেডিক্যাল কলেজের উল্টোদিকে এই এলাকায় ঢোকার প্রবেশপথ। কথিত রয়েছে, বউ বাজারের বাইজি কালচারের শুরু নাকি এখান থেকেই। যদিও সে কালচার আজ অতীত! অন্যান্য নিষিদ্ধপল্লীর মতোই এই এলাকাও বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠে রাত বাড়লেই।

baiji-dance-red-light

খিদিরপুর- খিদিরপুর এলাকাতেও একটি নিষিদ্ধপল্লী রয়েছে। যদিও তা তুলনায় অনেকই ছোট।

red-light-area

লেবুতলা- কলকাতা থেকে কিছুটা দূরে অবস্থিত এই যৌনপল্লী। ডানলপের কাছাকাছি। খিদিরপুর এলাকার মতোই এটি আকারে এবং বিস্তারে অনেকটাই ছোট। যদিও রাত হলেই এই অঞ্চলেও বাড়তে থাকে লোকসমাগম।

baranashi-red-light

  • এবার ভাবুন এই এলাকাগুলি পাশ কাটিয়েই যাবেন নাকি একটু ঘুরে আসবেন! সবটাই আপনার মর্জি…!!  অন্যদিকে এই প্রতিবেদন কোনওভাবেই কাউকে আঘাত করার জন্যে কিংবা উস্কানি দেওয়ার জন্যে নয়। ছবির সঙ্গে প্রতিবেদনের কোনও মিল নেই। ইন্টারনেট থেকে পাওয়া ছবিগুলি
----
--