শামির বিরুদ্ধে তদন্ত করবে লালবাজারের মহিলা গোয়েন্দারা

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ভারতীয় দলের ক্রিকেটার মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে ওঠা বধূনির্যাতন ও খুনের চেষ্টার অভিযোগের তদন্ত করবে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগ৷ শুক্রবার লালবাজারে একথা জানান কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা প্রধান প্রবীন ত্রিপাঠি৷ তিনি জানান, গোয়েন্দা বিভাগের অন্তর্গত উইমেন্স গ্রিভেন্স সেল সামি ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগের তদন্ত করবে৷

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার লালবাজারে গিয়ে গোয়েন্দা প্রধানের কাছে সামির বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তাঁর স্ত্রী হাসিন জাহান৷ সেই অভিযোগপত্রটি রাতেই যাদবপুর থানায় পাঠিয়ে দেয় লালবাজার৷ তার ভিত্তিতেই সামি-সহ তাঁর পরিবারের মোট পাঁচজনের বিরুদ্ধে বধূনির্যাতন, ধর্ষণ, খুনের চেষ্টা, মারধর, ভয় দেখানো-সহ একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করে যাদবপুর থানার পুলিশ৷ লালবাজারের কর্তাদের নির্দেশে, আজ শুক্রবারই এই মামলার তদন্তভার তুলে দেওয়া হয়েছে গোয়েন্দা বিভাগকে।

যেহেতু এক্ষেত্রে নারী নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে, তাই এই ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে গোয়েন্দা বিভাগের উইমেন্স গ্রিভেন্স সেলকে৷

- Advertisement -

সামির স্ত্রী অভিযোগ করেছেন, উত্তরপ্রদেশের শ্বশুরবাড়িতে তাঁকে একটি ঘরের মধ্যে জোর করে ঢুকিয়ে দেয় শামি৷ সেই ঘরে তাঁকে ধর্ষণ করেছে শামির দাদা মহম্মদ হাসিব আহমেদ৷ এক্ষেত্রে একাধিক ব্যক্তির যুক্ত থাকার অভিযোগ উঠছে৷ তাই ধর্ষণের বদলে গণধর্ষণের ধারা প্রয়োগ হবে কিনা তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করছে লালবাজার৷

সেজন্য আগে সামির স্ত্রীয়ের গোপন জবানবন্দি নেওয়া হবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে৷ সেই জবানবন্দির ভিত্তিতে আদালত যদি এই মামলায় গণধর্ষণের ধারা প্রয়োগ করতে বলে তাহলে এই মামলায় শামি ও তাঁর দাদার বিরুদ্ধে গণধর্ষণের ধারাও (৩৭৬ডি) রুজু করা হতে পারে৷

Advertisement ---
-----