দেবের নায়িকার আত্মহত্যায় শোকস্তব্ধ টলিউড

কলকাতা : শিলিগুড়ির চার্চ রোডের হোটেলে অভিনেত্রী পায়েল চক্রবর্তীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের পর চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে টলি-জগতে৷ শিরোনাম পড়ে ভুল ভাবার কোনও কারণ৷ তিনিই দেবের ছবির অভিনেত্রী ছিলেন৷ জনপ্রিয় ছবি ‘ককপিট’এ একটি স্বল্প সময়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি৷ টেলিভিশনের পাশাপাশি ওয়েব দুনিয়াতেও কাজ করেছিলেন পায়েল৷ জানা গিয়েছে বাংলা সিরিয়াল ‘চোখের তারা তুই’তে অভিনয় করে দর্শকের নজর কেড়েছিলেন তিনি৷

এছাড়াও ‘গোয়েন্দা গিন্নি’ এবং ‘জড়োয়ার ঝুমকো’ সিরিয়ালে অভিনয় করেছিলেন পায়েল৷ আপকামিং বাংলা ছবি ‘কেলো’ তে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল তাঁর৷ শুরু হয়ে গিয়েছে ঘটনার তদন্ত৷ পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শিলিগুড়ির হোটেল ইউমা অ্যান্জড রেস্টুরেন্টে উঠেছিলেন পায়েল। হোটেল কর্মীদের তিনি জানিয়েছিলেন, দার্জিলিং এবং গ্যাংটক ঘুরতে যাবেন। এরপরেই হোটেলের ২১৩ নং ঘরে চলে যান চিনি। হোটেল কর্মীরা জানিয়েছেন, রাতের খাবার লাগবে না বলে জানিয়ে দেন পায়েল। এমনকি, তাকে যেন ডাকাডাকি না করা হয় বলেও তাদেরকে নির্দেশ দেওয়া হয় বলে দাবি কর্মীদের।

আরও পড়ুন: ঐশ্বর্যকে ছেড়ে কার কাছে অভিষেক?

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে
- Advertisement -

এরপর থেকে ওই অভিনেত্রীর আর দেখা তারা পাননি বলেই জানিয়েছেন কর্মীরা। দীর্ঘসময় এভাবে চলার পর একটা সময় ঘরে গিয়ে ডাকেন কর্মীরা। কিন্তু সাড়া না মেলায় খবর দেন পুলিশে। পুলিশ এসে ঘরের দরজা ভেঙে পায়েলের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে পাঠায়। মৃতদেহ উদ্ধারের পরেই পায়েলের তরফে হোটেলের রেজিস্টারে দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাঁর পরিবারের সঙ্গেও পুলিশের তরফে যোগাযোগ করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন: ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইটে আরও সুপার Hot-SeXy সানি লিওনি

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

জানা গিয়েছে, যাদবপুরের বাসিন্দা তিনি৷ এলাকা। পায়েলের ডিভোর্স হয়ে গিয়েছিল৷ নিজের তিন বছরের ছেলের সঙ্গেই যাদবপুরে থাকতেন তিনি৷

Advertisement
---