গ্লোবালাইজেশনের যুগে হাসতে ভুলে যাচ্ছেন অনেকেই৷ কিন্তু ভাল থাকার সবচেয়ে ভাল উপায় মন খোলা হাসি৷ তবে শুধু ভাল সময়েই হাসবেন তা হলে তো হবে না৷ খারাপ সময়েই মুখে সমান পরিমাণ হাসিই চাই৷ আর সেটাই শেখাবে লাফটার যোগা বা হাস্যাসন৷ এই প্রকার যোগার প্রচুর গুণাগুণ বর্তমান৷ মানসিক অবসাদ দূর করার সবচেয়ে ভাল উপায় হাস্যাসনের অভ্যেস৷ দিনে অনন্ত ১৫ থেকে ২০ মিনিট এটি অভ্যেস করলে প্রচুর উপকারিতা পাবেন৷ তেমনই কিছু তথ্য রইল আপনাদের জন্য৷

  • বাড়ি হোক বা অফিস, আপনাকে কিন্তু মেজাজের উপরই ভরসা করতে হয়৷ মেজাজ ভাল হলে যে কোন কাজ হয় খুব তাড়াতাড়ি কিন্তু মেজাজ খারাপ হলেই সব ঘেঁটে ঘ৷ এই হাস্যাসন কিন্তু আপনার মেজাজকে খুব শিগগীরই ভাল করে দিতে পারে৷ হাসির ফলে মস্তিষ্কে এন্ডরফিন নামক কিছু কেমিক্যালের ক্ষরণ হয় যা আপনাকে উদ্দীপিত করে তোলে এবং মন ভাল করে৷
  • হাসি মানসিক অবসাদ দূর করার জন্য সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য পদ্ধতি৷ বর্তমান প্রজন্মে অতিরিক্ত কাজের চাপ, চাহিদা ইত্যাদির ফলে মানুষ অবসাদ গ্রস্থ হয়ে পড়ছেন৷ হাস্যাসন এমনই এক পদ্ধতি যা এই সমস্যাকে এক নিমেষে দূর করে দিতে পারে৷
  • যারা বিক্রয় বা বিপণণ বিভাগে কর্মরত তাদের ক্ষেত্রে হাস্যাসন খুব ভাল কাজ করে৷ এক নিমেষে এটি মুখে যেমন হাসি আনে তেমনই সারা শরীরেই আরাম অনুভূত হয়৷
  • হাসি একটি ধনাত্বক শক্তি এবং এর ফলে খুব সহজেই মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করা যায় এবং সম্পর্ক দৃঢ় হয়৷ আপনি যত বেশি হাসবেন আপনার বন্ধুর সংখ্যা তত বাড়বে৷
  • পৃথিবীতে শিশুরা হল সবচেয়ে বেশি সৃষ্টশীল, তার একমাত্র কারণ তারা সবসময় মন খুলে হাসে৷ হাসির ফলে মানসিক চেতনা দৃঢ় হয় ফলে উদ্ভাবন ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়৷
----
--