‘দরকারে কংগ্রেসের হাতে হাত রাখবে বামেরা’

স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: সেই রাজাও নেই৷ নেই রাজপাটও৷ এখন অন্যের কাঁধে ভর দিয়ে হালে পানি পাওয়ার লড়াই৷ এমন কথাই শোনা গেল রবিবার বেলঘরিয়ায় সিপিএম নেতা গৌতম দেবের সভা ফেরত দলীয় কর্মীদের কারও কারও মুখে৷ এদিনও একই কথা আওড়ালেন এই প্রবীণ সিপিএম নেতা, বিজেপিকে হঠাতে কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মেলাতে তারা প্রস্তুত৷ সিপিএমের এখন পাখির চোখ আগামী লোকসভা নির্বাচন৷

এদিন বেলঘরিয়া রামলীলা ময়দানে সিপিএমের এক প্রকাশ্য সভা অনুষ্ঠিত হয়৷ সেখানে বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গৌতম দেব৷ এদিন দলীয় কর্মীদের তিনি বলেন, ‘বিজেপিকে ঠেকাতে বামেরা দেশের যেকোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে হাত মেলাতে প্রস্তুত৷ যদি বলেন কংগ্রেসের সঙ্গেও৷’

হায়দরাবাদে সিপিএমের সদ্যসমাপ্ত পার্টি কংগ্রেসে এই নয়া সমঝোতার পথ খুলে রেখেছে বাম নেতৃত্ব৷ শোনা যাচ্ছে ‘বোঝাপড়ার’ মাধ্যমেই ‘হাতে’ হাত রাখবে বামেরা৷ গৌতম দেব বলেন, ‘পার্টি কংগ্রেসের আগে এই সিদ্ধান্তের পরিকল্পনা আমাদের ছিল না৷ কিন্তু পার্টি কংগ্রেসে এই সিদ্ধান্তই হয়েছে৷’

- Advertisement -

কিন্তু রোজই যে সিপিএম, কংগ্রেস ছেড়ে অন্য দলে যাওয়ার হিড়িক পড়ে যাচ্ছে৷ দল যে কলেবরে ক্রমেই ছোট হচ্ছে! গৌতম দেব তার জবাবও দিয়েছেন৷ তাঁর কথায়, দলের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির জন্য প্রচুর লোক যোগদানের দরকার নেই৷ সৎ, সাহসী আট-দশটা লোক সঙ্গে থাকলেই হবে৷ সমর্থকদের মায়া, মমতা, ভালবাসাকে পাথেয় করেই এগিয়ে যেতে চান তাঁরা৷

এদিনের প্রকাশ্য সভার আগে বেলঘরিয়া এরিয়া কমিটির উদ্যোগে লেনিনের একটি মূর্তি উদ্বোধন করেন গৌতম দেব৷ বামেদের এই কর্মসূচিতে উত্তর ২৪ পরগনার দলীয় জেলা সম্পাদক মৃণাল চক্রবর্তী, কামারহাটির বিধায়ক মানস মুখোপাধ্যায়, উত্তর দমদমের বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্য, সুভাষ মুখোপাধ্যায় প্রমুখ বাম নেতৃত্বরা উপস্থিত ছিলেন ।

Advertisement ---
-----