জোহানেসবার্গ: অবশেষে মুখ খুললেন অস্ট্রেলিয়া কোচ ড্যারেন লেম্যান৷ বল বিকৃতি কাণ্ড নিয়ে ক্রিকেটবিশ্বে হুলুস্থুল পড়ে গেলেও এতদিন মুখে কুলুপ এঁটে ছিলেন তিনি৷ কেপ টাউনের ঘটনাকে ‘দূর্ভাগ্যজনক’ ও ‘মারাত্মক ভুল’ আখ্যা দিলেও স্টিভ স্মিথদের মানসিক অবস্থা নিয়ে দুশ্চিন্তা ব্যক্ত করলেন লেম্যান৷

আরও পড়ুন: বল বিকৃতির ব্লু-প্রিন্ট ছিল ‘ছদ্মবেশী’ কাঞ্চার

Advertisement

‘ওরা মারাত্মক ভুল করেছে৷ তবে ওরা খারাপ মানুষ নয়৷ এমন দূর্ভাগ্যজনক ঘটনায় জড়িয়ে পড়ার পাশাপাশি ওদের একটা মানবিক সত্ত্বা রয়েছে৷ আশা করি মানুষ ওদের আরও একটা সুযোগ দেবে৷ তিনজনের মানসিক অবস্থা নিয়ে আমার দুশ্চিন্তা হচ্ছে৷’ নির্বাসিত তিন ক্রিকেটার স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে নিয়ে এমনটাই মন্তব্য করলেন অজি কোচ ড্যারেন লেম্যান৷

আরও পড়ুন: স্মিথহীন অজি সফরে অ্যাডভান্টেজ ইন্ডিয়া

সমর্থকদের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন লেম্যান৷ তিনি বলেন, ‘জানি আমরা অসংখ্য মানুষের আবেগে আঘাত করেছি৷ আমরা সত্যিই লজ্জিত৷ ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি সবার কাছে৷ আমরা যেভাবে খেলি, সেটা বদলানো দরকার৷ সমর্থকদের আস্থা ফিরে পাওয়ার জন্য আমাদের কষ্ট করতে হবে৷’

আরও পড়ুন: আইপিএলে নেই স্মিথ-ওয়ার্নার

সাংবাদিক সম্মেলন করে বল বিকৃতির অভিযোগ স্বীকার করে নেওয়ার পরেই আইসিসি স্টিভ স্মিথকে একটি টেস্ট ম্যাচ থেকে নির্বাসিত করেছিল৷ সঙ্গে তাঁর কেপ টাউন টেস্টের একশো শতাংশ ম্যাচ ফি কেটে নেওয়ার কথাও জানিয়েছিল ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল৷ ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে নির্বাসনে না পাঠালেও তার খাতায় তিনটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয়েছিল এবং ম্যাচ ফি-র ৭৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছিল৷

আরও পড়ুন: ১ বছরের নির্বাসন স্মিথ ও ওয়ার্নারের

ঘরে-বাইরে প্রবল চাপের মুখে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া স্মিথদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়৷ নিজেদের ভাবমূর্তি ফেরাতে স্মিথ ও ওয়ার্নারকে একবছর নির্বাসিত করে অজি বোর্ড৷ ব্যানক্রফটকে ন’মাসের নির্বাসনে পাঠানো হয়৷ স্মিথ ও ব্যানক্রফট নির্বাসন থেকে জাতীয় দলে ফিরলেও আরও একবছর অধিনায়কত্ব করতে পারবেন না৷ ওয়ার্নার কোনও ধরণের ক্রিকেটে কখনই নেতৃত্ব দিতে পারবেন না এর পর থেকে৷ স্মিথ ও ওয়ার্নারের আইপিএল খেলার উপরেও প্রতিবন্ধকতা জারি হয়েছে৷

----
--