সমকামী: হাতে হাত রেখে পার্থকে চিঠি দিচ্ছেন এলজিবিটিরা

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সমকাম ইস্যুতে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে এ বার চিঠি দিচ্ছেন এলজিবিটি (লেসবিয়ান, গে, বাই সেক্সুয়াল এবং ট্রান্স জেন্ডার)-রা৷ তবে, তার আগে, সোমবার কমলা গার্লস হাইস্কুলের সামনে হাতে হাত রেখে প্রতিবাদে সোচ্চার হচ্ছেন তাঁরা৷

কমলা গার্লস হাইস্কুলের ১০ ছাত্রীর বিরুদ্ধে সমকামিতার অভিযোগ উঠেছে৷ অভিযোগ, স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা জোর করে ওই সব ছাত্রীর কাছ থেকে মুচলেকা লিখিয়ে নিয়েছেন৷ এই ঘটনার জেরে এমনিতেই বিতর্ক দেখা দেয়৷ কিন্তু, এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাংবাদমাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বক্তব্য ওই বিতর্কতে আরও উসকে দিয়েছে৷ বিভিন্ন মহল থেকে স্কুল কর্তৃপক্ষের ওই মুচলেকা লিখিয়ে নেওয়া এবং শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের বিরোধিতাও করা হচ্ছে৷ একই সঙ্গে, প্রতিবাদও জারি রয়েছে৷

আরও পড়ুন: ফের এইডসের গ্রাসে পড়বেন যৌনকর্মী-ট্রান্সজেন্ডাররা, আশঙ্কা

কমলা গার্লস হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষিকার ওই আচরণ এবং শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যের বিরুদ্ধে এলজিবিটি আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত বহু মানুষও সরব হচ্ছেন৷ এবং, প্রতিবাদের অঙ্গ হিসাবে সোমবার কমলা গার্লস হাইস্কুলের সামনে বেলা ১২টা নাগাদ মানববন্ধনের মাধ্যমে প্রতিবাদে শামিল হচ্ছেন তাঁরা৷ শুধুমাত্র তাই নয়৷ দীর্ঘ বছর এলজিবিটি আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত সুদেষ্ণা দত্তগুপ্ত বলেন, ‘‘কার যৌনতা কেমন, সেটা অন্য কেউ বলে দিতে পারেন না৷ এ ভাবে মুচলেকা লিখিয়ে নেওয়া যায় না৷’’

আরও পড়ুন: মোদীকে পোস্ট কার্ড পাঠাচ্ছেন হাজার হাজার ট্রান্সজেন্ডার-সমকামী

একই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘শিক্ষামন্ত্রী যে ধরনের মন্তব্য করেছেন, আমরা তার বিরোধিতা করছি৷ শিক্ষামন্ত্রীর কাছে প্রতিবাদপত্র পাঠানো হচ্ছে৷’’ সম অধিকার আন্দোলনের সঙ্গে দীর্ঘ বছর যুক্ত রয়েছেন সৌভিক৷ তাঁর কথায়, ‘‘স্কুলে সেক্স এডুকেশন চালু করা জরুরি৷ অথচ, এই বিষয়ে কোনও হেলদোল দেখা যাচ্ছে না৷’’ সংবাদমাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রীর এমনই বক্তব্য প্রকাশ্যে এসেছে, ‘‘সমকামিতা এ রাজ্যের সংস্কৃতি নয়৷’’ মানববন্ধনের পাশাপাশি কমলা গার্লস হাইস্কুলের সামনে সোমবার পথনাটকেও অংশ নেবেন প্রতিবাদীরা৷

Advertisement
----
-----