৪৮ ঘন্টার মধ্যেই মৃত সৌমেনের বিমার টাকা দিল LIC

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মাঝের হাট ব্রীজ ভেঙে নিহত সৌমেন বাগের পাশে দাঁড়াল বিমা সংস্থা এলআইসি। বিমার চার লক্ষ আট হাজার ৬০০ টাকা তুলে দেওয়া হল মৃত সৌমেন বাগের পরিবারের হাতে।

চলতি মাসের চার তারিখ মঙ্গলবার বিকেলের দিকে ভেঙে যায় ডায়মন্ড হারবার রোডের উপর অবস্থিত মাঝের হাট ব্রীজ। ব্রীজের নিচে পরে প্রাণ হারান বেহালার বাসিন্দা সৌমেন বাগ। দুঃস্থ পরুবার চলত সৌমেনের টিউশনের টাকায়। সেই টাকা থেকেই জীবন বিমা করেছিলেন সৌমেন।

আরও পড়ুন- জয়নগরের স্কুলে চালু হল সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প

- Advertisement -

বৃহস্পতিবার সেই বিমার টাকা বেহালায় সৌমেনের বাড়িতে গিয়ে দিয়ে আসেন এলআইসি আধিকারিকেরা। মৃত সৌমেন বাগের বিমার নমিনি ছিলেন অনিতা বাগ। কলকাতা ডিভিশন-২ এর সিনিয়র ডিভিশনাল ম‍্যানেজার নিজে বেহালায় অনিতা দেবীর বাড়িতে গিয়ে তাঁর হাতে চেক তুলে দেন। যার মোট অর্থমূল্য চার লক্ষ আট হাজার ৬০০ টাকা।

বিমা করা বা কিস্তির টাকা দেওয়া খুবই সহজ। বরতমানের ডিজিটাল যুগে তা আরও সহজ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু যথা সময়ে বিমার টাকা পাওয়া নিয়ে জটিলতা কমেনি। অনেক ক্ষেত্রেই উপযুক্ত সময়ে বিমার টাকা ফের দেওয়া নিয়ে নানাবিধ অভিযোগ ওঠে বিমা সংস্থাগুলির বিরুদ্ধে। সেই জায়গায় মাঝের ব্রীজ দুর্ঘটনায় মৃত সৌমেন বাগের বিমার টাকা মিটিয়ে কার্যত নজির গড়ল এলআইসি। মৃত্যুর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই বাড়িতে গিয়ে নমিনি করা ব্যক্তির হাতে চেক দিয়ে এলেন এলআইসি আধিকারিক।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বেহালায় সৌমেনের বাড়িতে যান বিজেপির জাতীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “দেখুন পরিবারটির স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে। ছেলেটি ওর মামার কাছে থাকত। সৌমেনের মামার একটি মেয়েও রয়েছে। আমি দিল্লি যাচ্ছি, মৃত ছেলেটির বোনকে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে যদি কোন স্বনির্ভর কর্মসূচীতে লোন কিংবা কাজের দেওয়া যায় আমরা তার আবেদন জানাবো।”

Advertisement ---
---
-----