বিজেপিতে কুণাল! জল্পনা উসকে সাংসদের বাড়িতে সোমেন-লকেট

কলকাতা: তৃণমূল বিরোধী রাজ্যের এক ঝাঁক রাজনৈতিক নেতানেত্রীদের নিজের বাড়িতে চা-চক্রে আমন্ত্রণ করলেন তৃণমূল সাংসদ কুণাল ঘোষ। আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে সকলেই রবিবাসরীয় সন্ধ্যায় হাজির হলেন তৃনমূলের এই বিতর্কিত সাংসদের বাড়িতে।

এদিনের চা-চক্রে উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস নেতা সোমেন মিত্র এবং অরুণাভ ঘোষ, বিজেপির লকেট চ্যাটার্জি এবং সায়ন্তন বসু, জাতীয়তাবাদী তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা অমলেন্দু মিত্র। এছাড়াও প্রথম সারির না হলেও বেশ কয়েকজন বামপন্থী ব্যক্তিত্ব ছিলেন এদিনের চা-চক্রের অনুষ্ঠানে। এদিনের চা-চক্র সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক বলে দাবি করেছেন কুণাল ঘোষ। অনেক দিন সকলের সঙ্গে গল্প-গুজবের জন্যেই সবাইকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন কুণাল। একইসঙ্গে তাঁর দাবি, “গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার নেতাদেরও আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। ওনারা আসতে পারেননি। আমাকে ফোন করেছিলেন। জাতীয়তাবাদী তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এসেছিলেন সাধারণ সম্পাদক অমলেন্দু মিত্র। সবার সঙ্গে আলোচনা হল।”

দেখুন কুণালের বক্তব্যের ভিডিও

- Advertisement -

যদিও চা-চক্রের আড্ডায় আগত সকলেই সকলেই রাজ্যের শাসক দলের বিরোধী। অনেকে একসময় সাংসদ-সাংবাদিক কুণাল ঘোষের ক্রিয়াকলাপ নিয়ে বিস্তর গালমন্দ করেছেন। সারদা কাণ্ডে রাজ্য পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করার পর থেকেই তৃণমূল কংগ্রেস এবং দল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উলটো সুর গাইছেন কুণাল। জামিনে মুক্তি পেয়ে তৃণমূল বিরোধীদের এক ছাতার তলায় নিয়ে এসে কী নতুন রাজনৈতিক সমীকরণ তৈরি করতে চাইছেন সাংসদ কুণাল? এই প্রশ্নের কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

এদিনের চা-চক্রে অংশ নেওয়া সকলে তৃণমূল বিরোধী। এই মুহূর্তে রাজ্যে তৃণমূল বিরোধী প্রধান শক্তি হিসেবে উঠে এসেছে বিজেপি। বাম-কংগ্রেস সহ তৃণমূলের অনেক নেতা গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে আগ্রহী বলে দাবি করছেন বিজেপি নেতৃত্ব। কংগ্রেসের দাপুটে নেতা সোমেন মিত্রের বিজেপিতে যোগদানের বিষয়েও তৈরি হয়েছিল গুঞ্জন। এদিনের চা-চক্রটিকে সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক বলেই দাবি করেছেন সোমেন মিত্র। যদিও কংগ্রেস নেতা অরুণাভ ঘোষ বলেছেন, “তৃণমূল বিরোধী সব শক্তির সঙ্গে আমরা হাত মেলাতে রাজি।” এদিনের চা-চক্রে সেই বিষয়ে কিছু আলোচনা হয়েছে কিনা তা পরিষ্কার করে কিছু বলেননি অরুণাভ বাবু। অন্যদিকে বিজেপি নেত্রী লকেটের মতে, “কোনও জল্পনা নয়। আগামী দিনে রাজ্যে বিজেপি আসছেই। কোনও শক্তিই বিজেপিকে ঠেকাতে পারবে না।”

Advertisement
---