জেনে নিন রানি এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপের কিছু বেফাঁস মন্তব্য

লন্ডন: উল্টো পাল্টা বেফাঁস কথাবার্তার জন্যেই কখনও হাসির খোরাক কখনও বা বিতর্কের মুখে পড়েছেন ব্রিটেনের রানি এলিজাবেথের স্বামী প্রিন্স ফিলিপ৷ তিনি অবশ্য এবার তাঁর যাবতীয় রাজকীয় দায়িত্ব থেকে অবসর নিচ্ছেন৷ ৯৫ বছরের ফিলিপ সামনের অগাষ্ট মাস থেকে তাঁর রাজকীয় দায়িত্ব থেকে সরছেন বলে ঘোষণা করেন। ফলে ওই সময় থেকে আর তাঁকে দেখা যাবে না কোনও অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে৷ নতুন কোনও বেফাঁস মন্তব্য শোনা যাবে  না ঠিকই৷ তাই একটু পিছনে ফিরে দেখে নেওয়া যাক বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন স্থানে গিয়ে তাঁর বেশ কিছু পুরনো বেফাঁস উক্তি যা অনেককে মনে করিয়ে দিতে পারে সেদিনের সব মজার ঘটনাগুলিকে ৷

১৯৮১ সালে ব্রিটেনে অর্থনৈতিক মন্দার সময় তিনি বলেছিলেন-“প্রত্যেকে বলেন বিনোদনের জন্য তাদের আরো সময় দরকার। কিন্তু এখন তারা অভিযোগ করছেন তাদের কাজ নেই।”
১৯৮৬ সালে চিন সফরে গিয়ে সেখানে একদল ব্রিটিশ ছাত্রদের তিনি বলেছিলেন, “তোমরা এদেশে বেশিদিন থাকলে তোমাদের চোখ সরু হয়ে যাবে।”
১৯৯৪ সালে কেইম্যান দ্বীপ সফরে গিয়ে স্থানীয় এক সম্ভ্রান্ত ব্যক্তিকে তিনি বলেছিলেন- “আপনাদের অধিকাংশই তো জলদস্যুদের বংশধর, তাই না?”
১৯৯৭ সালে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়ি পার্ক করার কাজে নিযুক্ত কর্মচারী তাকে চিনতে না পারায় ক্রুদ্ধ হয়ে তিনি তাকে বলেছিলেন- “আস্ত একটা আহাম্মক, গাধা।”
১৯৯৯ সালে এডিনবরাতে একটি বৈদ্যুতিক ফিউজ তৈরি কারাখানা সফরের গিয়ে তিনি বলেছিলেন – “দেখে মনে হচ্ছে কোনো ভারতীয় এটি বানিয়েছে।”
২০০২ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরের সময় আদিবাসী এ্যাবোরোজিনসদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বলেছিলেন  “তোমরা কি এখনও বর্শা ছোঁড়?”
২০০২ সালে আইল অব লিউইস সফরের সময় বর্ম পরিহিত এক নারী পুলিশকে লক্ষ্য করে তিনি বলেছিলেন, “আপনাকে দেখে আত্মঘাতী বোমা-হামলাকারী মনে হচ্ছে।”
২০১৩ সালে লুটন হাসপাতালে ফিলিপিনো এক নার্সের সাথে কথা বলার সময় তিনি মন্তব্য করেন- “এনএইচএস-এ আপনাদের যে সংখ্যা তাতে মনে হয় ফিলিপিন অর্ধেক খালি হয়ে গেছে।”
২০১৩ সালে তালিবানের হামলা থেকে রক্ষা পাওয়া নোবেল জয়ী মালালা ইউসুফজাইকে তিনি বলেছিলেন “বাচ্চারা স্কুলে যায় কারণ বাবা-মায়েরা তাদেরকে বাড়িতে দেখতে চায়না।”
২০১৭সালে একটি বৃদ্ধাশ্রমে গিয়ে এক বৃদ্ধকে দেখে বলেছিলেন “আপনাকে দেখে মনে হয় অভুক্ত।”

Advertisement
---