হেলমেট ছাড়াই বাইকে, ফাইন দিতে হল এই অভিনেতা-অভিনেত্রীকে

নয়াদিল্লি: “তারা অভিনেতা-অভিনেত্রী। প্রায় বহু দর্শকের মনোরঞ্জন করে থাকেন তারা। তাই তাঁদের অবশ্যই উচিত ট্রাফিক আইন মেনে চলা। এই আইন যদি সেলিব্রিটিরাই লঙ্ঘন করে তাহলে সাধারণ মানুষ কে কোন দিক দিয়ে দোষ দেওয়া যায়।” এমনই কথা উঠে এসেছে, গুজরাতের ট্রাফিক পুলিশ, অমিতা ভানানির কথায়।

‘লাভরাত্রি’ ছবি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয়েছে ওয়ারিনা হুসেন এবং আয়ুশ শর্মার। এই ছবির প্রমোশনেই ভাদোদারা (গুজরাত) রাস্তায় হেলমেট ছাড়াই ছবির প্রমশনে ব্যস্ত উঠতি দুই তারকা। তবে সে তারকাই হোক আর সাধারণ মানুষ। আইন সবার জন্যই এক হওয়া উচিৎ। আর সেই কারনেই এই ভুলের জন্য তাদের কাছ থেকে ১০০ তাকা করে ফাইন করে গুজরাতের ট্রাফিক পুলিশ। সূত্রের খবর, ওয়ারিনা এবং আয়ুশ ছিলেন ভাদোদারা হোটেলে। রাতেই সেই হোটেলে হানা দেয় পুলিশ। আর তাদের কে একটা মেমো ধরান হয়। সেই মেমো তেই স্পষ্ট করা ছিল তাদের অপরাধ। ১০০ টাকা ফাইন নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয় তাঁদের।

প্রসঙ্গত, বহুদিন ধরে গসিপের শিরোনামে ছিল সলমন খান প্রযোজিত ছবি ‘লাভরাত্রি’। কারণ ছবির নাম নিয়েও তৈরী হয়েছিল নানা সমস্যা।সব সমস্যা থিতিয়ে পড়ে কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে ‘লাভরাত্রি’ ছবির ট্রেলার। এই ছবির মধ্যে দিয়েই বলিউডে অভিষেক ঘটতে চলেছে সুশ্রুত(আয়ুশ) এবং মনীশার(ওয়ারিনা)।

- Advertisement -

ছবির কাহিনী অনুযায়ী দু’জন একে অপরের প্রেমে পাগল৷ তাদের দুষ্টু-মিষ্টি প্রেমের গল্প নিয়েই তৈরি চিত্রনাট্য৷ ছবি জুড়ে কেবল গুজরাতের ছোঁয়া৷ গুজরাতি নাচ গরবা থেকে শুরু করে, ডান্ডিয়া উৎসব, এবং এসবের মাঝে সুশ্রুত এবং মনীশার প্রেম৷ টিজারের কিছু অংশে দেখা গিয়েছে বিদেশেও গরবায়ে মেতেছে হিরো হিরোইন৷ বিদেশের ওলিতে গলিতে গুজরাতি কায়দায় নিজেদের ভালবাসার জাদু ছড়াচ্ছেন৷ ছবির প্লটের সম্বন্ধে এখন ছবির নির্মাতা কোনও মন্তব্য করতে নারাজ৷ সাধারণ দুটি ছেলেমেয়ে সুশ্রুত এবং মনীশার অসাধারণ প্রেমের কাহিনী জেন ওয়ারইয়ের কাছে পৌঁছে দেওয়াই কাজ সলমনের৷

এবার আসা যাক ছবির অভিনেতা অভিনেত্রীদের কথায়৷ তাঁদের স্ক্রিন প্রেজেন্স যে বেশ ভালই তা ট্রেলারেই বোঝা গিয়েছে৷ ওয়ারিনা এবং আয়ুশের রশায়নের মধ্যে রম্যান্সের ছড়াছড়ি৷ আয়ুশের, ওয়ারিনার দিকে তাকানো থেকে শুরু করে তাঁদের একে অপরকে জড়িয়ে ধরা৷ সবেতেই প্যাশনের ছোঁয়া৷ সব মিলিয়ে রোম্যান্স, ড্রামা মিলে মিশে একাকার৷ ট্রেলারে আরেকটি দারুণ বিষয় হস, হিরো হিরোইনের প্রতিটি কস্টিউমই গুজরাতি স্টাইলে৷ গুজরাতির সঙ্গে ওয়েস্টার্নের টাচ৷ ওয়ারিনা এবং আয়ুশকে একসঙ্গে বেশ ভালই মানিয়েছে৷ তাঁদের জুটি পছন্দ হয়েছে নেটিজেনের৷

‘লাভরাত্রি’ ছবিতে সঙ্গীত একটা গুরুত্বপূর্ণ রোল প্লে করতে চলেছে৷ কারণ ট্রেলারে যে গানটি শোনা গিয়েছে তা নিয়ে ইতিমধ্যেই হইচই পড়ে গিয়েছে৷ ছবির পরিচালনায় রয়েছেন অভিরাজ মিনাওয়ালা৷ সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন তনিশ্ক বাগচি৷ প্রযোজনায় থাকছেন সালমা খান৷ এ বছর ৫ অক্টোবর মুক্তি পাবে ছবিটি৷

কিছুদিন আগে মুক্তি পেয়েছিল ছবিটির টিজার।আর তার পর থেকেই খানিক কন্ট্রোভার্সির মধ্যে পড়ে গিয়েছিলেন সলমন খান৷ বিশ্ব হিন্দু পরিসদ সলমনকে হুমকি দিয়েছিলেন ছবির নামকরণের জন্য৷ তাঁদের মতে নবরাত্রি উৎসবকে অপমান করা হয়েছে৷ ছবির নাম ‘লাভরাত্রি’ দেওয়া উচিত হয়নি৷ এমনকি তাঁরা এও ঘোষণা করেছিলেন, যে ব্যক্তি সলমনকে প্রকাশ্যে চর মারতে পারবে তাকে ৫ লাখ টাকা পুরষ্কার দেওয়া হবে৷ আর যে সিনেমার সেটকে নষ্ট করবে তাকে ২ লাখ টাকা পুরষ্কার দেওয়া হবে৷ তবে এখন সব কিছুকে উপেক্ষা করেই মুক্তি পেয়েছে ছবির ট্রেলার। ৫ ই অক্টোবর মুক্তি পাবে ‘লাভরাত্রি’৷

Advertisement ---
---
-----