নয়াদিল্লি : অ্যালকোহল সম্পর্কে সর্বদা অভিযোগই শোনা যায়৷ তার খারাপ গুণের লম্বা লিস্ট৷ কিন্তু জানেন কি, পরিমিত অ্যালকোহল মস্তিস্কের উন্নতি ঘটাতে পারে? এমনকী, স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া থেকেও আটকায় মদ্যপান৷ শুধু তাই নয়৷ ক্যানসার নিরাময়েও অ্যালকোহলের এক বিরাট ভূমিকা রয়েছে৷ সম্প্রতি একটি গবেষণায় একথা প্রকাশ পেয়েছে৷

গবেষণা বলছে, অ্যালঝাইমারের মতো রোগ তাড়িয়ে দিতে পারে পরিমিত মদ্যপান৷ কার্ডোভাসকুলার রোগ থেকে ক্যান্সারের মতো দুরারোগ্য ব্যাধিতেও অ্যালকোহল ম্যাজিকের মতো কাজ করে৷ তবে অবশ্যই তা পরিমিত৷

রচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইকেন নেদারগার্ড জানিয়েছেন, বেশি মদ্যপান অত্যধিক ইথানল কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের উপর প্রতিকূল প্রভাব ফেলে৷ কিন্তু গবেষণা বলছে, কম মাত্রায় অ্যালকোহল নিলে তা মস্তিস্ককে সতেজ রাখে৷ স্মৃতি হারানো থেকেও আটকায় পরিমিত অ্যালকোহল৷

গবেষকরা দেখিয়েছেন কীভাবে সেরিব্রাল স্পাইনাল ফ্লুইড (CSF) মস্তিস্কে সঞ্চালিত হয়৷ এর মধ্যস্থ প্রোটিন কীভাবে অ্যালঝাইমার সহ ডিমেনশিয়ার অন্য রোগগুলিও দূরে রাখতে সাহায্য করে৷ ইঁদুরের উপর পরীক্ষা চালিয়েছিলেন গবেষকরা৷ দীর্ঘদিন বেশি মাত্রায় অ্যালকোহল নিলে পশুদের মস্তিস্কে কী পরিবর্তন হয়, লক্ষ্য করেন তাঁরা৷ দেখা যায়, গ্লাইফ্যাটিক সিস্টেমে পরিবর্তন আনে অ্যালকোহল৷ মস্তিস্কে উত্তেজনা বাড়ায়৷

উলটোদিকে কম মাত্রায় অ্যালকোহল মস্তিস্কের উত্তেজনা কমায়৷ গ্লাইফ্যাটিক সিস্টেম ভালো হয়৷ সঠিক মাত্রায় CSF সঞ্চালনের ফলে স্মৃতিশক্তি লোপ পাওয়া কমে৷ স্বাভাবিকভাবেই ডিমেনশিয়ার ঝুঁকিও কমে৷ এককথায় মস্তিস্কের পুষ্টি বৃদ্ধি ঘটায় পরিমিত মদ্যপান৷ কিন্তু বেশি পরিমাণে মদ্যপান করলে উলটো প্রভাব হয়৷ স্মৃতি লোপ পায় বলেও গবেষণায় জানানো হয়েছে৷

----
--