মুম্বই: সাড়ে ১৩ হাজার কোটি টাকার ব্যাংক জালিয়াতিতে অভিযুক্ত পলাতক হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদী ও মেহুল চোকসির বাংলো গুঁড়িয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিল মহারাষ্ট্র সরকার৷ কেন্দ্রীয় সরকারের কোস্টাল রেগুলেশন জোন মোতাবেক তাদের বাংলো ভাঙা হবে৷

নীরব মোদী ও মেহুল চোকসির আলিবাগে বিলাসবহুল বাংলো রয়েছে৷ অভিযোগ, বাংলো নির্মাণের ক্ষেত্রে উপকূল পরিবেশ ও প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার উদ্দেশে তৈরি তট অঞ্চল নিয়ন্ত্রণ আইন (কোস্টাল রেগুলেশন জোন) মানা হয়নি৷ রায়গড় জেলায় পরিবেশ সংক্রান্ত একটি বৈঠকের পর মহারাষ্ট্রের পরিবেশমন্ত্রী রামদাস কদম মামা-ভাগ্নের বাংলো ভেঙে ফেলার নির্দেশ দেন৷ মোদী ও চোকসির বাংলো আগেই বাজেয়াপ্ত করে ইডি৷ এখন রাজ্য সরকারকে ইডির সঙ্গে শলাপরামর্শ করে এই বিষয়ে এগোতে হবে৷

Advertisement

শুধু নীরব মোদী বা মেহুল চোকসি নয়৷ আলিবাগ অঞ্চলে সেলিব্রিটি থেকে শুরু করে শিল্পপতি অনেকের বিরুদ্ধে কোস্টাল রেগুলেশন না মেনে বাংলো তৈরির অভিযোগ রয়েছে৷ শিল্পপতি রতন টাটা, আনন্দ মাহিন্দ্রা, অভিনেত্রী জিনাত আমানের মতো প্রায় ১৮০ জন বলিউড ও শিল্পপতিদের বাংলো রয়েছে রায়গড় জেলার আলিবাগ ও মুরুদে৷

এই ১৮০টি বাংলোর মধ্যে একটির মালিক গীতাঞ্জলী জেমসের কর্ণধার মেহুল চোকসির৷ আলিবাগ ও মেরুদ মিলিয়ে মোট ২৭২টি বাংলো রয়েছে৷ তার মধ্যে ১৬৪টি বাংলো অবৈধভাবে তৈরি করা হয়েছে বলে সরকারের কাছে রিপোর্ট জমা পড়েছে৷ ন্যাশনাল গ্রীন ট্রাইবুনালে এই নিয়ে মামলার তোড়জোর করা হচ্ছে৷ দোষী প্রমাণিত হলে পাঁচ বছরের জেল ও ১ লক্ষ টাকা জরিমানা পর্যন্ত হতে পারে৷

----
--