অভিনয় প্রতিযোগিতায় সুযোগ পেল মহিষাদল গয়েশ্বরী বালিকা বিদ্যালয়

স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: জাতীয় স্তরে স্কুল ভিত্তিক অভিনয় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে দিল্লিতে। তার আগে জেলা ও রাজ্য স্তর থেকে বাছাই করা হচ্ছে সেরা স্কুলগুলিকে। জেলাস্তর থেকে রাজ্যস্তরে অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছে মহিষাদল গয়েশ্বরী বালিকা বিদ্যালয়। তমলুকের ডিমারি হাই স্কুলে জেলার সাতটি স্কুলকে নিয়ে সর্ব শিক্ষা মিশন অভিনয় প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

হিন্দি ও ইংরেজি এই দুই ভাষায় জেলার সাতটি স্কুল অংশগ্রহণ করেছিল। তার মধ্যে প্রথম হয়ে রাজ্যস্তরে অভিনয় প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পেল মহিষাদল গয়েশ্বরী বালিকা বিদ্যালয়। ২৫ সেপ্টেম্বর কলকাতায় অনুষ্ঠিত হবে রাজ্যস্তরের বাছাই পর্ব। আর সেই পর্বেও সফল হয়ে জাতীয় স্তরে অংশগ্রহণের সুযোগ পাওয়ার জন্য মহিষাদল গয়েশ্বরী বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা প্রতিনিয়ত তালিম নিয়ে চলেছেন।

- Advertisement -

মহিষাদল গয়েশ্বরী বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা শুভ্রাশ্রী মাইতি জানান, গত ২০১৪-২০১৫ সালে আমাদের স্কুল জাতীয় স্তরে বিঞ্জান নাটক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের সুযোগ পেয়েছিল। সেই প্রতিযোগিতায় আমাদের স্কুলের ছাত্রী দীপান্বিতা দাস ও রিনিতা নায়েক সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার অর্জন করেছিল।

এছাড়াও আমরা ব্লক, জেলা ও রাজ্যস্তরের নানা প্রতিযোগিতায় দর্শকের মন কেড়ে সম্মান অর্জন করেছি। চলতি বছরে জাতীয় স্তরে অভিনয় প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য আমাদের স্কুলের পাঁচ জন ছাত্রীকে নিয়ে আট মিনিটের একটি নাটক তৈরি করা হয়েছে। বয়:সন্ধি কালীন সমস্যা নিয়ে নাটকটি তৈরি করা হয়েছে। নাটকের নাম ‘রোশনী- মানবতা কী’।

আরও পড়ুন: নগরজীবন সুখের নয় পাখিদের

তিনি আরও জানান, জেলাস্তরে অভিনয় করে আমাদের স্কুলের দল প্রথম হয়েছে। আগামী দিনে রাজ্যস্তর ও জাতীয় স্তরেও যাতে প্রথম স্থান দখল করতে পারে তার জন্য আমরা প্রতিনিয়ত প্রশিক্ষণ দিয়ে চলেছি। ছাত্রছাত্রীদের নাটকের প্রতি আগ্রহ বাড়ি তোলার জন্য মহিষাদল শিল্প কৃতি নাট্য সংস্থার কর্ণধার সুরজিৎ সিনহার সহযোগিতায় স্কুলের ব্যবস্থাপনায় বর্ষব্যাপী অভিনয় প্রশিক্ষণ শিবিরের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেখানে স্কুলের ৭৫ জন ছাত্রী অংশগ্রহণ করেছে। সপ্তাহের প্রতি শনিবার কলকাতার নামীদামী অভিনেতা অভিনেত্রীরা উপস্থিত হয়ে স্কুলের ছাত্রীদের প্রশিক্ষণ দিয়ে চলেছেন।

Advertisement
----
-----