‘‘উন্নয়নের প্রশ্নে কেন গয়ং গচ্ছ ভাব?” তোপ মমতার

স্টাফ রিপোর্টার, কালিম্পং: মন্ত্রী বা আমলা যেই হন না কেন, উন্নয়নের প্রশ্নে তিনি যে কাউকে রেয়াত করবেন না তা ফের স্পষ্ট করে দিলেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ পঞ্চায়েত ভোট পর্ব মিটতেই ফের জেলায় জেলায় প্রশাসনিক বৈঠকের সফরে বেড়িয়ে পড়েছেন তিনি৷ বুধবার বিকেলে কালিম্পংয়ে দার্জিলিং-কালিম্পংয়ের প্রশাসনিক বৈঠক থেকে সেই বার্তায় দিলেন তিনি৷

ক্লাসের দিদিমণির কায়দায় মন্ত্রী থেকে আমলা একের পর এক কর্তাকে দাঁড় করিয়ে উন্নয়নের হাল হকিকতের খোঁজ নিলেন৷ জানতে চাইলেন, ‘‘কোনও কাজ শুরু হওয়ার পর কেন তা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে না?’’ প্রশ্ন তুললেন, ‘‘উন্নয়নের প্রশ্নে কেন গয়ং গচ্ছ ভাব? কেন ধারাবাহিকতার অভাব? এক দফতরের সঙ্গে অন্য দফতরের সমন্বয়ের ঘাটতি কেন?’’

মন্ত্রী থেকে আমলাদের স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিলেন, ‘‘ দার্জিলিং-কালিম্পংকে প্রকৃতি তার অপরূপ সৌন্দর্য দিয়ে ভরিয়ে দিয়েছে৷ অথচ পর্যটনে যথাযথ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না৷’’ নির্দেশের সুরে জানিয়ে দিলেন, ‘‘পর্যটনটাকে গুরুত্ব দিন৷ উত্তরবঙ্গের অর্থনৈতিক কাঠামোর অনেকখানি নির্ভর করে এই পর্যটনের ওপর৷ কিন্তু পর্যাপ্ত পরিকাঠামো না থাকলে পর্যটকরা আসবেন কেন?’’ সরাসরি পর্যটন বিভাগকে এবিষয়ে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়ার কড়া নির্দেশ জারি করলেন৷

- Advertisement -

পাহাড়ে জল ও বিদ্যুতের সমস্যা অজানা নয় মুখ্যমন্ত্রীর৷ সেই প্রসঙ্গেই প্রশাসনিক কর্তাদের উদ্দেশ্যে নিজের একরাশ ক্ষোভ উগরে তিনি বললেন, ‘‘এখানে জলের সমস্যা রয়েছে৷ তবু আপনারা পাহাড়ের জল ধরে রাখছেন না কেন?’’ উন্নয়নের প্রশ্নে তিনি যে কাউকে রেয়াত করবেন না তা স্পষ্ট করে জানিয়ে বললেন, ‘‘পদে থেকে পদের অপব্যবহার করবেন না৷ অযথা সময় নষ্ট করবেন না৷ এভাবে ধীর গতিতে উন্নয়নের কাজ হলে চলবে না৷’’ শুধু যে কথার কথা নয়, তাঁর নির্দেশ পালন হয়েছে কি না, ফের পরবর্তী বৈঠকে এসে তিনি যে তা খতিয়ে দেখবেন স্পষ্টভাবে সেকথাও জানিয়ে দিলেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান৷

Advertisement ---
---
-----