ত্রিপুরায় সংগঠন মজবুত করতে মুকুলকে পাঠাচ্ছেন মমতা

প্রতীকী ছবি৷

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: পড়শি রাজ্য ত্রিপুরায় সংগঠনকে মজবুত করতে দলের রাজ্যসভার সাংসদ মুকুল রায়কে পাঠাচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ দলীয় সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে, নেত্রীর নির্দেশে আগামী এপ্রিল মাসের ৫ তারিখ ত্রিপুরায় পৌঁছবেন তিনি৷ সংগঠনকে ঢেলে সাজানোর পাশাপাশি দলের রাজনৈতিক কনভেনশনও করবেন মুকুল রায়৷

আরও পড়ুন: মুকুল রায়কে দলে নিতে আপত্তি নেই অধীরের

সম্প্রতি পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের পর ত্রিপুরায় জোর ধাক্কা খেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ তৃণমূল কংগ্রেসের কোঅর্ডিনেশন কমিটির চেয়ারম্যান রতন চক্রবর্তী সহ এক ঝাঁক কর্মী ও নেতা যোগ দিয়েছেন গেরুয়া শিবিরে৷ ফলে এটা মনে করা হচ্ছে যে, আগামী দিনে বামশাসিত ত্রিপুরায় বিধানসভা ভোটে বামপন্থীদের কাছে বিজেপি হয়ে উঠতে পারে এক বড় চ্যালেঞ্জ৷ দলকে শক্তিশালী করে ত্রিপুরার রাজনৈতিক লড়াইয়ে নামার জন্য মুকুল রায়কে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷

আরও পড়ুন: মুকুল রায় জিন্দাবাদ! পোস্টারে ছয়লাপ প্রশাসনিক ভবন

তৃণমূল কংগ্রেসের সিনিয়র এক নেতার কথায়, ‘‘কেন এবং কী কারণে ত্রিপুরায় আমাদের সংগঠন ধাক্কা খেল, তার বিশদ খোঁজখবর করে নেত্রীর কাছে রিপোর্ট দেবেন মুকুল রায়৷ পাশাপাশি বাঙালি অধ্যুষিত ত্রিপুরায় দলকে আরও মজবুত করাও তৃণমূল কংগ্রেসের লক্ষ্য৷’’ একই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘কারণ আগামী ২০১৮-তে ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচন৷ সম্প্রতি পাঁচ রাজ্যে সাফল্যের পর আগামী বছর বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি চেষ্টা করবেই যাতে বামশাসিত ত্রিপুরায় বামপন্থীদের একটা বড় ধাক্কা দিয়ে তাদের হাত থেকে ত্রিপুরা দখল করা যায়৷ বিজেপির এই বাড়বাড়ন্ত আটকাতে গেলে যেটা আমাদের দরকার সেটা হল, ত্রিপুরায় সংগঠনের ভিত মজবুত করা৷ আর সেই কারণেই মুকুল রায়কে ত্রিপুরা পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷’’

আরও পড়ুন: ১১ মাস পর তৃণমূল ভবনে মুকুল রায়
- Advertisement -

জানা গিয়েছে, মার্চ মাসের মধ্যেই ত্রিপুরায় সংগঠনের সমস্ত ব্লক কমিটি গঠনের কাজ সম্পূর্ণ করতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস৷ ত্রিপুরা থেকে ফিরে এসে নেত্রীকে সমস্ত রিপোর্ট দেওয়ার পর, তাঁর নির্দেশ মতো আন্দোলনের রূপরেখা ঠিক করবে দল৷ পাশাপাশি দেখে নেওয়া হবে শক্তির নিরিখে বামপন্থী এবং গেরুয়া পার্টি ঠিক এই মুহূর্তে ঠিক কোন পজিশনে আছে৷ সেক্ষেত্রে ত্রিপুরায় রাজনৈতিক মূল শত্রু বাছার পর সেই অনুযায়ী আন্দোলনের রূপরেখা গড়ে তোলা হবে৷

আরও পড়ুন: মুকুল-অভিষেকের সামনে সংঘর্ষে জড়াল তৃণমূল

তৃণমূল কংগ্রেসের ওই নেতার কথায়, ‘‘আগামী দিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেও যাবেন ত্রিপুরায়৷ যোগ দেবেন দলের বিভিন্ন কর্মসূচিতে৷ কারণ ত্রিপুরায় যদি বিজেপির পাল থেকে আমরা হাওয়া কেড়ে আনতে পারি, তবে সর্ব ভারতীয় রাজনীতিতে বিজেপিকে একটা জোর ধাক্কা দেওয়া যাবে৷ সম্প্রতি পাঁচরাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের পর বিজেপির কাছেও এটা একটা পরীক্ষা যে বাঙলাভাষী রাজ্যগুলিতে এরা কতটা প্রভাব ফেলতে পারে৷’’

Advertisement ---
---
-----