‘মাসে ২৫ টাকা করে দিলে মিলবে নগদ ২ লক্ষ টাকা সঙ্গে মাসে পেনশন’

কলকাতাঃ  সমস্যা দীর্ঘদিনের! আর তা শুনে এক মিনিটে সমস্ত সমস্যার সমাধান করলেন তিনি। তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নেতাজি ইন্ডোরে কেবল অপারেটরদের সম্মেলনে সমস্যার সমাধান শুনে মিনিটে মিটিয়ে দিলেন তা। ঘোষণা করলেন একগুচ্ছ প্রকল্পের কথা। এমনকি পেনশনের কথাও করলেন ঘোষণা।

আজ শুক্রবার দক্ষিণ ২৪ পরগণার এক কেবল অপারেটর তাঁকে নিজেদের খারাপ অবস্থার কথা জানান মুখ্যমন্ত্রীকে। এরপরেই ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন মুখ্যমন্ত্রী। কার্যত সভাস্থলকেই বানিয়ে ফেলেন নিজের দফতর। মঞ্চেই সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী।

পড়ুন আরও- আমার বোনকে টেনে নিয়ে গিয়েছিল রেস্ট-রুমে’! অভিযুক্ত বলি তারকা

এরপরেই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এমএসওরা কর্মীদের স্বার্থ দেখুন। যৌথ উদ্যোগে সমস্যার সমাধান করুন। প্রয়োজনে নিজেদের মধ্যে বৈঠক করুন।‌’ এরপরই তিনি একটি কমিটি গঠন করে দেন। যাতে রাখেন ফিরহাদ‌ হাকিম, অরূপ বিশ্বাস, মলয় ঘটকদের মতো মন্ত্রীরা রয়েছেন। বিষয়টি দেখার দায়িত্ব দেন তাদের উপর।

পড়ুন আরও- শাসকদলের প্রাক্তন বিধায়কের সঙ্গে গোপন বৈঠক মুকুলের

শুধু তাই নয়, ১ লক্ষ ৩০ হাজার কেবল অপারেটর এবং তাঁদের পরিবারকে সরকারের স্বাস্থ্যসাথী এবং সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের আওতায় আনার কথা ঘোষণা করেন। সঙ্গে জানান, কেবল অপারেটররা মাসে সরকারকে ২৫ টাকা দিলে, সরকার সেই সঙ্গে আরও ৩০ টাকা তাঁদের দেবে। এছাড়া ৬০ বছর পরে পেনশন হিসেবে ২ লক্ষ টাকা নগদ এবং মাসে মাসে ১৫০০ টাকা দেওয়ার কথাও জানান।

পড়ুন আরও- সেক্স ট্রেনিং কোর্স চালানোর অপরাধে ১০ মহিলাকে ধরল পুলিশ

এছাড়া স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় অপারেশনের সময় টাকা, কিংবা কাজ করতে করতে মৃত্যু হলে সেই কেবল অপারেটরের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে আর্থিক সাহায্যও করা হবে বলে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর ঘোষণা করেন, ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত যাঁরা ব্যবসা করবেন, তাঁদের জিএসটি দিতে হবে না।

মুখ্যমন্ত্রীর এহেন ঘোষণাতে খুশি রাজ্যের কেবল অপারেটররা।

Advertisement
---
-----