ঘরে বউ রেখে ফের বিয়ে, শাস্তি গণপ্রহার

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: ঘরে স্ত্রী রয়েছে৷ তবু আরও একটি বিয়ে করার অভিযোগ উঠল জামাইয়ের বিরুদ্ধে৷ আর সেই কারণে জামাইকে গাছে বেঁধে চলে গণপ্রহার৷ গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে বীরভূমের বোলপুর থানা এলাকার নুরপুরে ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়৷ অভিযুক্ত জামাই সন্দীপ মজুমদার৷

স্থানীয় সূত্রে খবর, নুরপুর এলাকায় বহুদিনের বাসিন্দা অভিযুক্ত সন্দীপ মজুমদার৷ বছর কয়েক আগে তাঁর সঙ্গে ওই এলাকারই এক তরুণীর বিয়ে হয়৷ জানা গিয়েছে, তাঁরা নিজেরা ভালবেসেই বিয়ে করে৷ কিন্তু বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন ছোট ছোট বিষয়কে কেন্দ্র করে অশান্তি লেগে থাকত তাঁদের সংসারে৷ এদিকে মাস খানেক আগে সন্দীপবাবু কর্মসূত্রে আসানসোলে যান৷ তবে বাড়িতে কেউই স্পষ্ট ভাবে জানত না সন্দীপবাবুর কিসের কাজ৷

কিন্তু সন্দীপবাবুর শ্বশুরবাড়ির লোকের অভিযোগ, সন্দীপ আসানসোলে অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করে। সেই ছবি দিন তিনেক আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করে সে৷ সেখান থেকেই বিষয়টি সকলে জানতে পারে। এরপর মঙ্গলবার রাতে সন্দীপ নুরপুরে ফিরে আসে।

- Advertisement -

এদিকে সন্দীপের ফিরে আসার খবর পেয়ে প্রথম পক্ষের স্ত্রীর পরিবারের লোকজন ও গ্রামবাসীরা তাঁকে পাকড়াও করে স্থানীয় একটি ক্লাবে নিয়ে যায়৷ সেখানে চলে বেধড়ক মার৷ এরপর রাস্তায় বের করে গাছে বেঁধে শুরু হয় গণপ্রহার৷ পরে বোলপুর থানায় খবর পৌঁছলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাঁকে উদ্ধার করে৷ মারধরের চোটে অভিযুক্তর শারীরিক অবস্থা বেহাল হয়ে পড়ায় পুলিশ তাঁকে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করে।

Advertisement ---
---
-----