স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গোৎসব৷ এই উৎসবকে কেন্দ্র করে আনন্দে মেতেছে গোটা বাংলা৷ ব্যতিক্রম নয় বাংলার বংশীহারি ব্লকের গ্রাম কল্যাণি। যেখানে প্রায় আশি শতাংশ মুসলিম সম্প্রদায়ের বাস। আর কুড়ি শতাংশ হিন্দুদের৷ আয়তনে ছোট্ট তবুও ধর্মীয় উন্মাদনা ও হিংসার যুগেও কল্যাণি গ্রামে আয়োজিত দুর্গা পুজোর গুরুত্ব অসীম। আর দশটি পুজা আয়োজন থেকে সম্পূর্ণ ভিন্ন এই গ্রামের পুজা।

দীর্ঘ ৬০ বছর ধরে চলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নিদর্শন বহন করে চলে গ্রামটি। হিন্দু ও মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের মানুষ কাঁধে-কাঁধ মিলিয়ে দেবী দুর্গার আরাধনায় সামিল হন।

পুজো মণ্ডপের ঢিল ছোড়া দূরেই রয়েছে মসজিদ। তাতে কি হয়েছে? একে অপরের ধর্মীয় অনুষ্ঠানে শরিক হন তাঁরা। দুর্গা পুজোকে কেন্দ্র করে চলে মেলা। দশমীতে একসঙ্গে বিসর্জনে সামিল হয়ে পরস্পরের মিষ্টিমুখ করিয়ে সম্প্রীতির নজির সৃষ্টি করে চলেছে বংশীহারির কল্যাণী গ্রাম।

----
--