আম উৎসব পালিত হচ্ছে বীরভূমে

স্টাফ রিপোর্টার, সিউড়ি: আম উৎসব পালিত হচ্ছে জেলায় জেলায়৷ আর এইবার এই উৎসবে যোগ দিল বীরভূম৷ ১৪ ও ১৫ জুন দুদিন ব্যাপী চলবে এই আম উৎসব৷ এই উৎসবে খুশি আম চাষিরা৷

পশ্চিমবঙ্গে বিশেষ একটি মরসুমী ফল হল আম৷ এই আম অনেক মানুষের জীবিকার উৎস৷ কিন্তু আমের উৎপাদনের তালিকায় এই রাজ্য অনেক পিছিয়ে৷

আরও পড়ুন: গরুর সঙ্গে সঙ্গমে বাধ্য করে ব্ল্যাকমেলিং

- Advertisement -

যা অনান্য দেশের তুলনায় মাত্র এক তৃতীয়াংশ৷ উদ্দেশ্য আমের ফলন আরও বৃদ্ধি করা৷ তাই উৎপাদনশীলতা, গুণাগুন বৃদ্ধি, বিশেষ করে রপ্তানি যোগ্য আম উৎপাদনে কাজে লাগানো হবে আধুনিক প্রযুক্তিকে৷ এই লক্ষ্য নিয়েই রামপুরহাট পুরসভার মাঠ প্রাঙ্গণে দুদিন ব্যাপি আম উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে।

এই আম উৎসবের শুভ উদ্বোধন হতে চলেছে আগামী ১৪ জুন৷ এই উৎসবের মূল বিষয় বিভিন্ন প্রজাতির আম নিয়ে প্রদর্শনী, আম বিষয়ক আলোচনা, আমের রন্ধন প্রতিযোগিতা ইত্যাদি৷ এই উৎসবকে সাফল্য মন্ডিত করার জন্য প্লাস্টিক মুক্ত করা হয়েছে ও সকলের অবাধ প্রবেশ রাখা হয়েছে৷ এই উৎসবে সক্রিয়ভাবে সকলকে অংশগ্রহণ করার জন্য আবেদন জানিয়েছেন রামপুরহাটের মহকুমার শাসক সুপ্রিয় দাস৷

আরও পড়ুন: ‘মসজিদ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্তে বিশ্বে ধর্মযুদ্ধ শুরু হতে পারে’

রাজ্যের কৃষি মন্ত্রী, আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, জানিয়েছেন, এটি একটি রাজ্য সরকারের খুবই ভালো উদ্যোগ৷ এই প্রদর্শনী আগামীদিনে আম চাষিদের উৎসাহিত করবে৷ উল্লেখ্য, এই আম উৎসবে প্রথমবার অংশগ্রহণ করে পুরষ্কার ছিনিয়ে নিয়েছে পূর্ব বর্ধমান পূর্বস্থলীর হিমসাগর আম৷ রাজ্যস্তরের আম উত্সবে বর্ধমানের এই হিমসাগর আম তৃতীয় পুরষ্কার ছিনিয়ে নেওয়ায় খুশির হাওয়া আম চাষি মহলে৷

পূর্বস্থলী সাংস্কৃতি মঞ্চের সম্পাদক অভিজিত চক্রবর্তী জানিয়েছেন, ২০১৫ সাল থেকে পূর্বস্থলী থানা মাঠে আম উৎসব হয়। এই মেলায় বিনামূল্যে আম ও আম দিয়ে তৈরি খাবার খাওয়ানো হয়। এবছর এই উৎসবে ৬০.৫ কুইন্ট্যাল আম ও আম দিয়ে খাবার তৈরি হয়েছে। পাশাপাশি চাষিদের স্টল থেকে আমও বিক্রী হয়েছে। মোট ২২ রকমের আম ছিল।

আরও পড়ুন: শিয়ালদহ শাখায় বিপর্যস্ত রেল পরিষেবা, বন্ধ ট্রেনের বুকিং

রাজ্য সরকার ২০১৬ সাল থেকে শুরু করে ‘বেঙ্গল আম উৎসব’। এই উৎসবে রাজ্যের অন্যান্য জেলার আম প্রদর্শিত হলেও বর্ধমান থেকে আম নিয়ে যাওয়া হত না। পূর্বস্থলীর আম উৎসবের প্রধান উৎসাহদানকারি মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ এবং উদ্যানপালন দফতরকে এই বিষয়ে উদ্যোগ নেওয়ার জন্য পূর্বস্থলীর আমচাষিরা আবেদন করেন।

সেই আবেদনের পরিপেক্ষিতে স্বপন দেবনাথ এবং পূর্ব বর্ধমান জেলা উদ্যানপালন দফতরের উদ্যোগে এ বছরই প্রথম এই জেলার আম রাজ্য সরকারের মেলায় প্রদর্শিত হল। জেলা উদ্যান পালন দফতর এই জেলার শুধুমাত্র পূর্বস্থলী থেকে হিমসাগর, ল্যাংড়া, আম্রপালী এবং রানী এই চারধরণের মোট ৪.৫ টন আম চাষিদের কাছ থেকে কিনে নিয়ে যায়৷

আরও পড়ুন: মাংস রান্না করতে না চাওয়ায় স্ত্রীকে খুন করল স্বামী

Advertisement ---
---
-----