স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: কালবৈশাখীর জেরে বাড়ির উপর ভেঙে পড়ল গাছ। আটকে রয়েছেন বাসিন্দারা। বিপজ্জনক অবস্থায় রয়েছেন তাঁরা।

মঙ্গলবার রাতে বাড়ি ফিরতে গিয়ে ঝড়ের মুখে পড়ে রীতিমতো নাজেহাল শহর ও শহরতলীর মানুষ৷

ঝড় বৃষ্টির জেরে ব্যহত হয়েছে ট্রেন চলাচল ৷ শিয়ালদহ স্টেশনে মেন এবং সাউথ সেকশনে সন্ধে ৭টা ৪২ থেকে সাড়ে আটটা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল৷ হাওড়া ডিভিশনে ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হয়েছে৷

এদিনের ঝড় বৃষ্টির জেরে গাছ অথবা গাছের অংশ ভেঙে পড়ায় যান চলাচল ব্যহত হয়েছে কলকাতা রাস্তার বেশ কিছু অঞ্চলে৷

এদিকে পার্কসার্কাস কড়েয়া অঞ্চলে একটি নির্মিয়মান বাড়ি ভেঙে পড়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পাশ্ববর্তী একটি টালির ছাদের বাড়ি৷

আনন্দপুরে একটি দোতলা বাড়ি ভেঙে পড়ায় একজনের মত্যু হয় এবং অন্যজন গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি৷

লেনিন সরণী উপর যাত্রী বোঝাই অটোর উপর গাছ ভেঙে পড়ায় দুজন মারা যান যাদের মধ্যে একজন মহিলা এবং একজন পুরুষ৷ আরও তিনজন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে৷

প্রবল ঝড় বৃষ্টিতে হাওড়ায় বঙ্কিম সেতুর একাংশ ভেঙে পড়ল৷ ১৯ নম্বর প্ল্যাটফর্মের উপর ভেঙে পড়ে সেই অংশ৷ হতাহতের খবর নেই৷

বেলুড়ের জঙ্গিসিং গলির কাছে এক কিশোরী সাইকেল আরোহীর গায়ে গাছ ভেঙে পড়ে৷ লিলুয়া রেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে মৃত ঘোষণা করা হয়৷ নাম খুশি মোরিয়া৷ ১৬ বছর বয়স৷ গাছের সঙ্গে বিদ্যুতের তার গায়ে পড়ে৷ তড়িদাহত হয়েই মৃত্যু৷

বেলুড়ের শ্রমজীবী হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের৷ জঙ্গিসিং এলাকাতেই জখম হন তিনি৷ তিনিও তরিদাহত হন৷

বেলুড়ের শ্রমজীবী হাসপাতালের কাছে শর্ট সার্কিট হয়ে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে৷

হাওড়া নাজিরগঞ্জের পোদরা নজরুলপল্লিতে একজনের মৃত্যু হয়েছে৷

শহরের বিভিন্ন জায়গায় গাছ পড়ার ঘটনা ঘটেছে৷

বালির কুমিল্লাপাড়া, শান্তিনগরে বেশ কয়েকটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে৷

বালির আনন্দনগরে মন্দিরের একাংশ ভেঙে পড়েছে৷

হিন্দমোটর স্টেশনের কাছে ওভারহেডের তারে গাছ পড়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ৷

---