পাহাড়েই এখন ছুটি উপভোগের সেরা সময়

সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়,কলকাতা: ফেব্রুয়ারির শেষ থেকেই তাপমাত্রা বাড়তে থাকে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে৷ মার্চের মাঝামাঝিতেই সূর্যের তেজ বেশ কড়া হতে শুরু করে৷ এই সময় অনেকেই পারি দেন দার্জিলিং বা সিকিমের পথে।

আলিপুর আবহাওয়া অফিসের অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “ফেব্রুয়ারি অবধি দার্জিলিং,সিকিম এইসব অঞ্চলে প্রচণ্ড ঠাণ্ডা থাকে। মার্চ থেকে এখানে তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করে। তাই এই সময়ে পাহাড়ের দিকে বেড়াতে যাওয়া বেশ ভালোই।” এপ্রিল মাসে সিকিমের গ্যাংটকের তাপমাত্রা থাকে ২০ থেকে ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। দার্জিলিংয়ের ম্যাল সংলগ্ন অঞ্চলের তাপমাত্রাও থাকে ২০ থেকে ২২ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “এই সময় স্থানীয় মেঘ পাহাড়ের গায়ে ধাক্কা খেয়ে কিছুক্ষেত্রে বৃষ্টি ঝড়ায়৷কখনওবা শিলাবৃষ্টিও হয় পাহাড়ে।” কিছু ক্ষেত্রে পশ্চিমী ঝঞ্ঝাও মার্চ থেকে মে মাসে পাহাড়ে বৃষ্টির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “এই সময় তৈরি হওয়া পশ্চিমী ঝঞ্ঝা জম্মু-কাশ্মীর হয়ে উত্তর-পূর্ব ভারত অবধি বিস্তৃত থাকে। এর প্রভাবে বৃষ্টি হয় পশ্চিমবঙ্গের পার্বত্য অঞ্চল সহ সিকিমেও।” তবে এ ভাবে বৃষ্টি হলেও, আলিপুর আবহাওয়া অফিসের অধিকর্তাও মনে করেন, এটাই দার্জিলিং বা সিকিমে ছুটি কাটানোর জন্য সেরা সময়।

আলিপুরের আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী এক সপ্তাহে গ্যাংটকের তাপমাত্রা থাকবে সর্বনিম্ন ১৩ থেকে সর্বোচ্চ ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। দু’-এক পশলা বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে প্রায় প্রত্যেক দিনই। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস বলছে, আগামী এক সপ্তাহে দার্জিলিঙের তাপমাত্রা থাকবে সর্বনিম্ন ১০ ডিগ্রি থেকে সর্বোচ্চ ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। শনি এবং রবিবার ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস থাকলেও, সপ্তাহের পরের পাঁচদিন বৃষ্টির পূর্বাভাস দেয়নি আলিপুরের আবহাওয়া অফিস। বরং, আকাশ থাকবে মেঘলা,সঙ্গী হবে হালকা কুয়াশাও।

Advertisement ---
---
-----