ইস্টবেঙ্গলের হারে কার্যত চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগান

কলকাতা: লাল-হলুদ মশাল নিভিয়ে বহুদিন বাদে ময়দানে সাদা-কালো ঝড়। মঙ্গলবার যুবভারতীতে ইস্টবেঙ্গলকে ২-১ গোলে হারিয়ে মিনি ডার্বি জিতে নিল মহামেডান স্পোর্টিং। আর ইস্টবেঙ্গলের হারে কার্যত লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেল মোহনবাগান। আপাতত লিগে যা পরিস্থিত তাতে শেষ দুই ম্যাচ হারলেও ট্রফি ঢুকছে সবুজ-মেরুন তাঁবুতেই। সেক্ষেত্রে যেকোন একটি ম্যাচে পয়েন্ট নষ্ট করতে হবে তৃতীয়স্থানে থাকা পিয়ারলেসকে।

ডার্বি ড্রয়ের পর মোহনবাগান পাঁচ গোলে ম্যাচ জিতলেও পিয়ারলেসের কাছে হেরে মোহনবাগানকে সুবিধে পাইয়ে দিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল। তাই মঙ্গলবারের মিনি ডার্বি ছিল লাল-হলুদের কাছে লিগে টিকে থাকার লড়াই। কিন্তু মহামেডানের কাছে পর্যুদস্ত হয়ে কলকাতা লগে নয়ে নয় করার স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল পদ্মাপাড়ের ক্লাবের।

প্রথমার্ধে এদিন ছন্নছাড়া ফুটবল খেলে দুই দলই। যদিও ম্যাচের ১২ মিনিটেই গোল করে এগিয়ে যায় সুভাষ ভৌমিকের ছেলেরা। সেটপিসের ফসল তুলে লাল-হলুদকে এগিয়ে দেন কোস্টারিকার বিশ্বকাপার জনি অ্যাকোস্টা। কর্নার থেকে ভেসে আসা বলে রালতের হেড আংশিক প্রতিহত করেন সাদা-কালো গোলরক্ষক। কিন্তু ফিরতি বল ফাঁকা গোলে ঠেলতে কোনও ভুল করেননি অ্যাকোস্টা। ডার্বির পর মিনি ডার্বিতেও গোল করলেন তিনি। এরপর প্রথমার্ধ জুড়ে দিশাহীন ফুটবল ইস্টবেঙ্গল-মহামেডানের। মাঝমাঠে আমনার দৌলতে রালতে, সুরাবুদ্দিনরা দু-একবার গোলের কাছাকাছি পৌঁছে গেলেও গোলমুখ খুলতে পারেননি। অন্যদিকে কয়েকটি বিক্ষিপ্ত আক্রমণ ছাড়া প্রথমার্ধে নিস্তেজ ছিল মহামেডানও।

- Advertisement -

বিরতিতে ড্রেসিংরুমে পোড় খাওয়া কোচ রঘু নন্দীর পেপটক বদলে দিল সাদা-কালো ব্রিগেডের খোলনলচে। বিরতি থেকে ফিরে এসে একের পর এক আক্রমণে লাল-হলুদ রক্ষণকে ব্যতিব্যস্ত করে তোলেন মহামেডান ফুটবলাররা। ইস্টবেঙ্গলের নিষ্প্রভ মাঝমাঠের সুযোগ নিয়ে গোলের খুব কাছে পৌঁছে যায় মহামেডান। এমেকা, দীপেন্দুদের একের পর এক শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। বারে লেগে প্রতিহত হয় প্রসেনজিতের শট। অন্যদিকে আমনা ছাড়া ইস্টবেঙ্গল নিয়ে বলার মত কিছুই নেই দ্বিতীয়ার্ধে। এরপর সবাই যখন ধরে নিয়েছে দুরন্ত ফুটবল খেলেও খালি হাতেই ফিরতে হবে মহামেডানকে, ঠিক তখনই ম্যাচের পটপরিবর্তন।

নির্ধারিত সময়ের ঠিক তিন মিনিট আগে দুরন্ত গোল করে মহামেডানকে সমতায় ফেরান ফিলিপ আদজা। অতিরিক্ত সময়ে ফের গোল মহামেডানের। লাল-হলুদ রক্ষণকে মাটি ধরিয়ে দিয়ে মাঝমাঠ থেকে বল পেয়ে একক দক্ষতায় গোল করে যান সেই ফিলিপ আদজাই। তাঁর জোড়া গোলেই স্বপ্নভঙ্গ লাল-হলুদের। অন্যদিকে ইস্টবেঙ্গলের নয়ে নয় করার স্বপ্ন ম্লান করে দীর্ঘ আট মরশুম পর বাগানে লিগ জয়ের অগ্রিম আনন্দ।

Advertisement
---