নয়াদিল্লি: সোমবারই জাতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল সাক্ষাতকার৷ তার পরেরদিনই অর্থাৎ মঙ্গলবার অ্যান্টিগুয়া থেকে এক ভিডিও বার্তায় নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করলেন ১৩ হাজার কোটি টাকা দুর্নীতিতে অভিযুক্ত হিরে ব্যবসায়ী মেহুল চোকসি৷

নিজের গোপন ঘাঁটি থেকে প্রকাশিত এক ভিডিওতে তিনি বলেন তাঁর বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগ এনেছে ইডি, তার পুরোটাই মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন। পাশাপাশি, দেশের তাঁর যা সম্পত্তি রয়েছে, তা অনৈতিক ও বেআইনী ভাবে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি৷

Advertisement

পলাতক ঘোষণা হওয়ার পর থেকে এই প্রথম প্রকাশ্যে এলেন মেহুল চোকসি৷ ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রক তাঁর পাসপোর্ট বাতিল করে দিয়েছে৷ কিন্তু ঠিক কি কারণে তাঁর পাসপোর্ট বাতিল করা হয়েছে, তা জানানো হয়নি৷ এই ইস্যুতে কোনও সদুত্তর না পেলে তিনি তাঁর পাসপোর্ট জমা দেবেন না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন চোকসি৷ ২০ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রকে চিটি লিখে তিনি সদুত্তর জানতে চেয়েছিলেন৷ কিন্তু তাঁকে কোনও উত্তর নাকি এখনও দেওয়া হয়নি৷

পাশাপাশি, তাঁকে জানানো হয় তিনি নাকি দেশের নিরাপত্তা ও জাতীয় সুরক্ষার প্রশ্নে আঘাত হানতে পারেন৷ দেশের নিরাপত্তার জন্য তিনি একটা বড়সড় ঝুঁকি বলে জানানো হয় তাকে৷ অথচ কেন তাঁকে এই আখ্যা দেওয়া হচ্ছে, সে বিষয়ে কোনও তথ্য দেওয়া হয়নি৷ ইতিমধ্যে মেহুল চোকসির বিরুদ্ধে ইন্টারপোলকে রেড কর্নার নোটিস জারির আবেদন জানিয়েছে ইডি। ইডির এই নোটিসের বিরুদ্ধে পালটা আবেদন জানিয়েছেন চোকসিও।

গতকালই প্রথম কোনও জাতীয় সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাতকার দেন পলাতক হিরে ব্যবসায়ী মেহুল চোকসি৷ হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি কথা বলেন দেশে প্রত্যাবর্তন না করা ও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ নিয়ে৷

ফোনে ও লিখিত উত্তরের মাধ্যমে পরিস্কার জানালেন দেশে ৪ হাজারেরও বেশি শাখা রয়েছে তাঁর কোম্পানির৷ কোথাও না কোথাও কোনও আইনী ও আর্থিক গাফিলতি হয়েছে৷ যার দায়ভার তাঁকে বয়ে নিতে বেড়াতে হচ্ছে৷ এরআগে, তাঁর বিরুদ্ধে কোনও অপরাধমূলক অভিযোগ ছিল না৷ কিন্তু এই ঘটনায় তিনি প্রত্যক্ষ ভাবে জড়িত নন বলে দাবি করেন তিনি৷

পাশাপাশি, তিনি জানিয়ে দেন, দেশ ছেড়ে পালাননি তিনি৷ হৃদরোগের চিকিৎসার জন্য তাঁকে বিদেশে আসতে হয়েছিল৷ যখন তিনি বিদেশে চিকিৎসাধীন, তখনই পিএনবির আর্থিক কেলেঙ্কারির কথা জানতে পারেন৷ তার আগে এ ব্যাপারে লেশমাত্র ধারণা তাঁর ছিল না বলে দাবি করেন এই ব্যবসায়ী৷

----
--