কলেজ ছাত্রীকে অশ্লীল মেসেজ পাঠিয়ে হাজতে নৌসেনা অফিসার

নয়াদিল্লি: ভারতীয় নৌসেনার এক অফিসারকে গ্রেফতার করল দিল্লি পুলিশ৷ তাঁর বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রীদের ধাওয়া করা ও অশালীন মেসেজ পাঠানোর অভিযোগ রয়েছে৷ পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত ওই নৌসেনা অফিসারের নাম সুরজ দে(২৯)৷ অভিযুক্ত অফিসার হংকংয়ে এক নৌ-কোম্পানিতে উচ্চ পদে কর্মরত৷

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে অভিযুক্ত ব্যক্তি একাধিক ফোন নম্বর থেকে কমবয়সী মেয়েদের অশালীন মেসেজ পাঠাত৷ জানা গিয়েছে ১৭ এপ্রিল দক্ষিণ দিল্লির একটি থানায় সংশ্লিষ্ট আধিকারিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন এক কলেজ পড়ুয়া৷

আরও পড়ুন: পাকিস্তানে তীর্থে গিয়ে নিখোঁজ আরও এক ভারতীয়

- Advertisement -

পুলিশের কাছে অভিযোগে ওই পড়ুয়া জানিয়েছেন, কয়েকদিন আগে ওই অফিসারের সঙ্গে পার্কে দেখা করেন৷ ওই অফিসার তাঁর এক বন্ধুর জন্য পেয়িং গেষ্ট খুঁজে দেওয়ার অনুরোধ করেন৷ সেই কারণে একে অপরের ফোন নম্বর বিনিময় করেন তাঁরা৷ কিন্তু তারপর থেকেই ওই পড়ুয়াকে অশালীন মেসেজ পাঠানো শুরু করেন বলে অভিযোগ৷

প্রথমে ব্যাপারটিকে বিশেষ গুরুত্ব দেননি ওই কলেজ ছাত্রী৷ বিরক্ত হয়ে ওই অফিসারের ফোন নম্বর ব্লক করে দেন৷ কিন্তু তাতেও রেহাই পাননি৷ বরং কলেজ ছাত্রীকে ধাওয়া করা শুরু করেন৷ এবং অপর এক নম্বর থেকে ফের অশালীন মেসেজ পাঠানো শুরু করেন৷ প্রায় প্রতিদিন নতুন নতুন নম্বর থেকে অশ্লীল মেসেজ পাঠাত ওই অফিসার৷ এরপরই থানায় সংশ্লিষ্ট অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন ওই কলেজ ছাত্রী৷

আরও পড়ুন: পিতৃ পরিচয় আদায়ের জন্য আদালতে দারস্থ ছেলে

মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ সুরজ দে’কে গ্রেফতার করে৷ তদন্তে পুলিশ জানতে পারে অভিযুক্ত ব্যক্তি আরও চারজন কলেজ ছাত্রীকে এইভাবে উত্যক্ত করত৷ একাধিক ফোন নম্বর থেকে তাদের অশালীন মেসেজ পাঠাত৷ শনিবার তাকে আদালতে তোলা হয়৷ বর্তমানে জেল হেফাজতে আছে সে৷