ফের সাংবাদিক বৈঠক, কাটল কি ধারাবাহিকের জট?

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: সিরিয়ালের জট কাটাতে ফের সাংবাদিক বৈঠক, তবে এবার সেই বৈঠক হল তৃণমূল ভবনে৷ বুধবার বেলা চারটে নাগাদ এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক-অভিনেত্রী দেবশ্রী রায়, ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী-অভিনেতা ব্রাত্য বসু, তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সুব্রত বক্সি, প্রযোজক শ্রীকান্ত মোহতা, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন ছাড়াও বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা।

প্রসঙ্গত, দিনের পর দিন ওভারটাইম করে প্রাপ্য টাকা না পাওয়া! ঘন্টার পর ঘন্টা কাজের পরও বেতন নিয়ে জটিলতা৷ এই ধরণের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে প্রযোজকদের সঙ্গে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বিবাদ বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে। তবে গত ৭ জুলাই প্রযোজক সংগঠন WATP ও কলাকুশলী সংগঠন FCTWEI-এর একটি মিলিত বৈঠক হয় এবং মৌ স্বাক্ষরিত হয়। তারপর ১৮ অগস্ট বন্ধ হয়ে যায় বহু সিরিয়ালের শ্যুটিং।

গত সোমবার এই নিয়ে টেকনিশিয়ান স্টুডিওতে অ্যার্টিস্ট ফোরাম ও প্রযোজকদের একটি মিটিং ছিল। যা কার্যন্ত পন্ড হয়ে যায়। যদিও এদিন সোমবারের সাংবাদিক বৈঠক ডেকে শিল্পীরা স্পষ্ট জানিয়ে দেন, প্রযোজকদের বিরুদ্ধে তাঁদের এই লড়াই নয়! তাঁদের কথা প্রযোজকরা তাঁদের স্বাক্ষর করা পূর্বের মৌ মেনে নিয়ে শিল্পীদের ডেকে নিলে তাঁরা কাজ করতে রাজি।

- Advertisement -

এদিকে প্রযোজকদের দাবি, তাঁরা এমন কোনও মৌ স্বাক্ষর করেননি। প্রযোজক রানে বলেন, “শিল্পীরা যে দশ ঘন্টা কাজের কথা বলছেন তা কোনও হিসাবে। সকাল দশটায় কল টাইম থাকলে অনেকে ১টাই সেটে এসে পৌঁছান। সেক্ষেত্রে ডিউটি আওয়ার কোনও সময় থেকে কাউন্ট করা হবে’।

শিল্পী-প্রযোজকদের এই লড়াইয়ে জেরে এখন পর্যন্ত বন্ধ ধারাবাহিকের নতুন পর্বের টেলিকাস্ট। এমনকি এই সমস্যার জেরে প্রায় হাজার দশেক শিল্পী-কলাকুশলীদের ভবিষ্যত অন্ধকারের মুখে৷ আদৌ কি বেরিয়ে আসবে কোনও রফাসূত্র, সেইদিকেই তাকিয়ে সকলে৷

Advertisement ---
---
-----