কলকাতা: ‘পানোতি’ এই নামেই তাঁকে ডাকা হত টলিপাড়ায়। ভালো করে বলতে গেলে ‘অপয়া’ বলা হত তাঁকে। টলিপাড়ায় প্রায় কোণঠাসা হয়ে যাওয়া, এই মানুষটিকে অন্য রূপে সবার সামনে পয়া করে তুলেছিলেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। তাইতো আজ তিনি কখনও টলিউডের ব্যোমকেশ কখনও আবার চকোলেট হিরো। এক সময় কাজ না পাওয়া ছেলেটির ঝুড়িতে এখন নিজের চয়েস ফুল সিনেমার ফুলঝুড়ি। বছর ভর টাইট শিডিউল। দম ফেলের সময় নেই। কিন্তু শতকাজের মাঝেও ঋতু দা-কে ভোলেনি যিশু। আজ পরিচালকের মৃত্যু দিনে বিষাদের ট্যুইট করলেন নায়ক। আক্ষেপের সুরে লিখেছেন ‘ অনেক ছবি করা বাকি থেকে গেল!’

আরও পড়ুন: এক বাচ্চার ওপর জোড়জবরদস্তি করায় সমালোচনার শিকার সলমন-জ্যাকলিন

শোনা যায়, ঋতুপর্ণ ঘোষের মৃত্যুর পর সিভিয়ার ডিপ্রেশনে চলে গিয়েছিলেন যিশু। এমনকি বারবার অভিনেতা নিজেও স্বীকার করেছে,, ” আমি সে সেময় ডিভাস্টেটেড হয়ে পড়েছিলাম। রোজ কাঁদতাম। বাবা-মা’র চলে যাওয়ার পর আর কারও মৃত্যু যে আমাকে এ ভাবে অ্যাফেক্ট করতে পারে, আমি বুঝতে পারিনি।” এমনকি সাইকোলজিকাল ক্লাস তার পর ধীরে ধীরে নর্ম্যাল হয়েছিলেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এক সময় যিশুকে ঋতুপর্ণের বয়ফ্রেন্ড বলা হত।

----
--