হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ রোগী, দেহ উদ্ধার রেললাইনের ধারে

হুগলি: হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ হয়ে যায় রোগী৷ তারপরই তাঁর দেহ মিলল রেললাইনের ধারে৷ ঘটনাটি শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতালের৷ মৃত রোগীর নাম জগন্নাথ সাউ (৩৭)৷ শ্রীরামপুর খটিরবাজার এলাকার বাসিন্দা তিনি৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ৷

জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগে তার ডায়রিয়া ধরা পরে৷ এরপর গত মঙ্গলবার ডায়রিয়া নিয়ে শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতালে ভরতি হন জগন্নাথ বাবু৷ চিকিৎসার জেরে তিনি সুস্থও হয়ে উঠছিলেন৷ চিকিৎসকরা তাঁর পরিবারকে জানিয়েছিল দু এক দিনের মধ্যে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হবে৷ এর মধ্যেই ঘটল বিপত্তি৷

আরও পড়ুন : মেয়েকে ৪০ হাজার করে মাসহারা দিতে হবে শোভনকে

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে হঠাৎই নিখোঁজ হয়ে যান জগন্নাথ বাবু৷ পরিবারের সদস্যরা তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে দেখেন তিনি বেডে নেই৷ শুরু হয় খোঁজাখুঁজি৷ হাসপাতালের কোথাও তাঁকে পাওয়া যায়নি৷ পরিবারের সদস্যরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান৷

এরপর শুক্রবার সকালে জিআরপি হাসপাতালের পোশাক পড়া এক ব্যক্তিকে শেওড়াফুলি বৈদ্যবাটি স্টেশনের মাঝে লাইনের ধারে পড়ে থাকতে দেখেন৷ তাঁরাই খবর দেন শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে৷ তারা গিয়ে দেহটি চিহ্নিত করেন৷ কবর দেওয়া হয় জগন্নাথ বাবুর পরিবারকে৷ তাদের অনুমান জগন্নাথ বাবু আত্মহত্যা করেছেন৷ ঘটনার পর থেকে শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতালের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷ কিভাবে তিনি হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যেতে পারেন তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে অন্য রোগীদের পরিবারের মধ্যে৷ এই বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷

----