ভোপাল: চলন্ত স্কুটিতে মডেলের স্কার্ট ধরে টানার চেষ্টা দুই যুবকের৷ ভরদুপুরে ব্যস্ততম রাস্তায় এমন ঘটনায় থতমত খেয়ে যান ওই তরুণী৷ তাদের ধাওয়া করার চেষ্টাও করেন৷ কিন্তু ব্যালান্স হারিয়ে স্কুটি থেকে পড়ে জখম হন৷ আর ঘটনার জন্য আঙ্গুল তোলা হয় মেয়েটির পোশাককে৷ তাঁকে বলা হয়, স্কার্ট পড়ার জন্যই ওরা এমন  আচরণ করেছে৷

ঘটনাটি মধ্যপ্রদেশের৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেন ওই উঠতি মডেল৷ জানান, স্কুটি করে যাওয়ার সময় দুই যুবক তাঁর স্কার্ট ধরে টানার চেষ্টা করে৷ সেই সঙ্গে তাকে উদ্দেশ করে বারবার অশালীন মন্তব্য করতে থাকে৷ তিনি লেখেন, ‘‘ওই দুই যুবক অন্য এক বাইকে ছিল৷ আমায় দেখে বলে, স্কার্টের নিচে কী আছে? এরপরই আমার স্কার্ট ধরে টানার চেষ্টা করে ওরা৷ ওই দুই যুবককে ধাওয়া করতে গিয়ে ব্যালান্স হারাই৷ এরপর রাস্তায় পড়ে যাই৷ এই ঘটনাটি ঘটে শহরের ব্যস্ততম রাস্তায়৷ আর কেউ একবারের জন্য আটকানোর চেষ্টা করেনি৷ বিনা বাধায় তারা পালিয়ে যায়৷ আর ওদের গাড়ির নম্বর টুকে নেওয়ার মতো অবস্থায় ছিলাম না৷’’

কোনও ফাঁকা জায়গায় এই ঘটনা ঘটলে কী হত তা ভেবেই শিউরে উঠছেন তিনি৷ পোস্টে লেখেন, ‘‘ভাবছি আমি যদি কোনও নির্জন জায়গায় থাকতাম তাহলে কী হত?’’ তিনি আরও লেখেন, ‘‘এই ঘটনার পর কিছুক্ষণের জন্য মাথা কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছিল৷ জীবনে নিজেকে কখনো এতটা অসহায় মনে হয়নি৷ আমি সেই ধরনের মেয়ে নই যে চুপচাপ ব্যাপারটা মেনে নেব৷ পরে এক বন্ধু আমায় কাছাকাছি একটি কফি শপে নিয়ে যায় এবং এই ঘটনা কাটিয়ে ওঠার জন্য সাহায্য করে৷ আমি দুর্বল নই৷ কিন্তু ওই ৩০ মিনিট কী করব কিছু ভেবে উঠতে পারিনি৷’’

এরপরই পোশাক নিয়ে সোচ্চার হন তিনি৷ বলেন, ‘‘আমি কী পোশাক পড়ব এটা আমি ঠিক করব৷ স্কার্ট পড়েছি বলে আমাকে হেনস্থা করার অধিকার ওদের কে দিয়েছে?’’ পুলিশে তিনি এখনও কোন অভিযোগ দায়ের করেননি৷ তবে সেটা তাড়াতাড়ি করবেন বলে জানিয়েছেন৷

----
--