ডিকা’র হ্যাটট্রিকে বাগানে বসন্ত

কলকাতা: পয়েন্টের নিরিখে সমমেরুতে অবস্থান করলেও ডার্বির আগে লক্ষ্য ছিল শীর্ষস্থান। ইস্টবেঙ্গলকে টপকে যেতে তাই ‘গোল চাই’ মন্ত্রেই ফুটবলারদের উদ্বুদ্ধ করেছিলেন মোহন কোচ শংকরলাল। শনিবার নিজেদের মাঠে ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশকে পঞ্চবাণে বিদ্ধ করল মোহনবাগান। যা চলতি কলকাতা লিগে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়। হ্যাটট্রিক করলেন দিপান্দা ডিকা।

বাগানের আক্রমণের সামনে এদিন ম্যাচের ২ মিনিটেই আত্মসমর্পণ করে পুলিশ রক্ষণ। গোল করে সবুজ-মেরুনকে এগিয়ে দেন ডিকা। এরপর ৩২ মিনিটে দ্বিতীয় গোল বাগানের। সৌরভ দাসের ঠিকানা লেখা সেন্টার থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ব্রিটো। দু’গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় সবুজ-মেরুন। দ্বিতীয়ার্ধের ৫২ মিনিটে গোল করে বাগানকে ফের এগিয়ে দেন ডিকা। এরপর খেলা শেষ হওয়ার কয়েক মিনিট আগে বাগানের হয়ে আরও দুটি গোল করেন হেনরি ও ডিকা৷

গুরুর কথা রাখলেন শিষ্যরা৷ মরশুমের সবচয়ে বড় ব্যবধানে জিতে লিগ টেবলে শীর্ষে ওঠে এল মোহনবাগান৷ ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরে এখন শংকরের ছেলেরা৷ আর এক ম্যাচ কম খেলে (৫) ১৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ইস্টবেঙ্গল৷

- Advertisement -

চলতি মরশুমে এই প্রথমবার বিপক্ষকে পাঁচ গোল দিল মোহনবাগান৷ কোচ শংকরলাল তাই বলছেন, ‘এই জয় দলের আত্মবিশ্বাস অন্য পর্যায়ে পৌঁছে দিল৷ পাঁচ গোলে জয় বাড়তি পাওনা৷ লক্ষ্য ছিল গোলের জন্য ঝাঁপানো৷’ ইনজুরি টাইমে হেনরি, ডিকা দুটি গোল করতে গোলপার্থক্যে ইস্টবেঙ্গেল এদিন ছুঁয়ে ফেলেছে গঙ্গাপারের ক্লাব৷ লিগের ফয়সলা যে হাড্ডাহাড্ডি হতে চলেছে তা বলার অপক্ষা রাখে না৷শেষবার ডার্বি ম্যাচ ড্র করলেও গোলপার্থক্যে মোহনবাগানের থেকে এগিয়ে থাকায় ট্রফি জিতেছিল লাল-হলুদ৷ ডার্বির আগে গোলপার্থক্য তাই মেগা ফ্যাক্টর এবং পুলিশ ম্যাচে সেই পার্থক্যটা কমিয়ে ফেলায় দলে স্বস্তি ফিরল মানছেন শংকরলাল৷তবে গোলপার্থক্য নিয়ে বিশেষ মাথা না ঘামিয়ে পরের ম্যাচের জন্য ঘুঁটি তৈরি করে ফেলতে চাইছেন ডিকাদের হেডস্যার৷ বাগানের ফোকাসে ঢুকে পড়েছে ২৯ তারিখের এরিয়ান ম্যাচ৷

হ্যাটট্রিক করে এদিন ম্যাচের সেরা হয়েছেন বাগানের ক্যামেরুন স্ট্রাইকার ডিকা৷দলের সঙ্গে দেরিতে যোগ দিলেও পাঁচ ম্যাচে ছয় গোল তারকা বিদেশি’র৷কোচ বলেন, ‘শতাংশভাগ ফিট না থাকলেও ডিকা ম্যাচ উইনার৷দেরিতে এলেও দলকে দারুণভাবে টেনে নিয়ে যাচ্ছে৷’ফুটবলারদের চোট আঘাত অবশ্য বাগান কোচকে চিন্তায় রাখছে৷ এদিন খেলার মাঝে চোট পেয়েছেন কিমকিমা৷কপাল ফেটেছে পাহাড়ি ফুটবলারের৷শিল্টন ডি’সিলভা আবার জ্বরে ভুগছেন,সুখদেব সিং বাগানের ফুটবলার কিনা সেই জট আটকে প্লেয়ার স্টেটাস কমিটির সিদ্ধান্তের উপর৷ ফুটবলারদের না পাওয়াই ভাবাচ্ছে শংকরলালকে৷ইতিমধ্যেই ডার্বির আবহে ঢুকে পড়েছে দুই প্রধান৷ ২-এর ডার্বির আগে নতুন কম্বিনেশন তৈরি করে নিতে চান কোচ৷যেখানে বাধ সাজছে ফুটবলারদের না থাকা ও চোট৷

Advertisement ---
---
-----