মোহনবাগানের স্তম্ভ গোষ্ঠ পাল আদতে ছিলেন বাঙাল

কলকাতা: মোহনবাগানের কিংবদন্তি খেলোয়াড় গোষ্ঠ পাল আদতে ছিলেন বাঙাল৷ বিখ্যাত এই ফুটবলার রক্ষনভাগে খেলার জন্য খ্যাতিলাভ করেছিলেন । তাঁর খেলা দেখে তৎকালীন দৈনিক ইংলিশম্যান তাঁকে চিনের প্রাচীর উপাধিতে ভূষিত করেছিল ।

আজ গোষ্ঠ পালের জন্মদিন৷ ১৮৯৬ সালের ২০ অগস্ট তাঁর জন্ম হয় এবং ১৯৭৬ সালের ৮এপ্রিল তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন৷ গোষ্ঠ পালের আদি বাস ছিল বর্তমান বাংলাদেশের ফরিদপুরে । তিনি ছোটবেলা থেকেই ফুটবল খেলা আরম্ভ করেছিলেন । ১৯০৭ থেকে ১৯১৩ সাল পর্যন্ত তিনি কলকাতার কুমারটুলি ক্লাবে খেলেছিলেন । মোহনবাগানের খেলোয়াড় রাজেন সেনের সাহায্যে তিনি ১৯১২ খ্রিস্টাব্দে মোহনবাগান দলে যোগ দেন। এর আগের বছরই অর্থাৎ ১৯১১ সালে মোহনবাগান বিদেশীদের হারিয়ে আইএফএ শিল্ড জিতেছিল ।

আরও পড়ুন- মিসের ফোয়ারাতেও তিন গোলে টালিগঞ্জ ‘বধ’ বাগানের

- Advertisement -

১৯১৩ খ্রিস্টাব্দে মোহনবাগানের হয়ে তিনি প্রথম খেলেন । এরপর টানা ২৩ বছর মোহনবাগানের হয়ে খেলেছিলেন । তিনি খেলতেন রাইট ব্যাক পজিসনে । খেলার সময় বুটপরা ইউরোপিয়ান খেলোয়াড়দের তিন খালি পায়ে খেলে প্রতিরোধ করতেন । ভারতীয় দল নিয়ে ১৯৩৩ সালে তিনি সিংহলে (বর্তমান শ্রীলঙ্কা) যান । অবশ্য পরের বছর দক্ষিণ আফ্রিকায় ভারতীয় ফুটবল অ্যাসোসিয়েসনের অধিনায়ক নির্বাচিত হবার পরেও তিনি আঘাতের কারণে যেতে পারেন নি । ফুটবলের পাশপাশি তিনি হকি খেলাতেও দক্ষ ছিলেন এবং ক্রিকেট এবং টেনিসও খেলতেন । ১৯৩৫ খ্রিস্টাব্দে তিনি অবসর গ্রহণ করেন ।

আরও পড়ুন- রাজনীতির বাইশগজে ইনিংস শুরুর পথে ভারতীয় ওপেনার

১৯৬২ খ্রিস্টাব্দে গোষ্ঠ পাল ভারত সরকার দ্বারা পদ্মশ্রী উপাধিতে ভূষিত হন । তিনি ছিলেন প্রথম ফুটবল খেলোয়াড় যিনি পদ্মশ্রী উপাধি পেয়েছিলেন । মোহনবাগান ক্লাব ২০০৪ খ্রিস্টাব্দে তাঁকে মরনোত্তর মোহনবাগান রত্ন দিয়েছিল । কলকাতায় তাঁর নামে একটি রাস্তা গোষ্ঠ পাল সরণি আছে । এবং এই রাস্তায় তাঁর একটি মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে । মোহনবাগান ক্লাবের ভিতরে তাঁর নামে একটি সংগ্রহশালা গোষ্ঠ পাল সংগ্রহশালা তৈরি হয়েছে । তাঁর উপর ডাকটিকিটও প্রকাশিত হয়েছে ।

Advertisement
-----