মোমো না খেললে মেরে ফেলার হুমকি

স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: এবার আর শুধু গেম খেলার অনুরোধ কিংবা নম্বর হ্যাকের হুমকি নয়৷ রীতিমত প্রাণে মারার চেতাবনি দিচ্ছে মোমো৷ এমনই অভিযোগ তুলেছে জলপাইগুড়ি রানিনগর এলাকার এক স্কুলপড়ুয়া৷ ইতিমধ্যেই থানায় অভিযোগও জানানো হয়েছে৷ অভিযোগ খতিয়ে দেখছে পুলিশ৷

রানিনগর এলাকায় এখন মোমো গেমের আতঙ্কে রয়েছে স্কুল পড়ুয়ারা। প্রাথমিকভাবে যে তথ্য পাওয়া গিয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে বেছে বেছে স্কুল-কলেজ পড়ুয়াদেরই মেসেজ পাঠাচ্ছে মোমো৷ নম্বরের জারিজুরি যতই থাকুক না কেন পুলিশের অনুমান এ কাজ স্থানীয়দেরই৷

আরও পড়ুন: জন্মাষ্টমীতেই বাঙালি যোদ্ধার বাড়িতে দুর্গা পুজোর প্রস্তুতি

- Advertisement -

শনিবার রাত ন’টা নাগাদ রানিনগর এলাকায় বনিজারহাট হাইস্কুলের একাদশ শ্রেনির এক ছাত্রীর মোবাইলে মেসেজ আসে মোমোর৷ লেখে, তার কথা মতো কাজ করতে হবে৷ ওই ছাত্রীর ব্যাংক ডিটেলস, পরিবার সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয়ও বলে মোমো৷ এরপরই প্রাণে মারার হুমকি দেয় ওই ছাত্রীকে৷

ওই ছাত্রীর কথায়, মেসেজগুলি নাকি পড়ার পরই মোবাইল থেকে মুছে যেতে শুরু করে৷ ঘাবড়ে গিয়ে ফোনে শিক্ষকদের বিষয়টি জানায়৷ রবিবার স্কুলের শিক্ষক মানস ভট্টাচার্য-সহ অন্যান্য শিক্ষক ওই ছাত্রীকে থানায় নিয়ে যান৷ দায়ের করা হয় অভিযোগ৷ ওই ছাত্রী জানায়, ‘‘আমি পুরো বিষয়টাই পুলিশকে জানালাম৷’’

আরও পড়ুন: নন্দীগ্রামের জওয়ানের মৃত্যু অস্বাভাবিক বলছে পরিবার

স্কুলশিক্ষক মানস ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘মোমো নিয়ে যেভাবে আতঙ্ক ছড়িয়েছে আমরা ভয়ে রয়েছি। ছাত্র-ছাত্রীরা ভয় পাচ্ছে৷ আমরা চাই পুলিশ বিষয়টি গুরুত্ব-সহকারে দেখুক৷ কোতয়ালি থানার সাইবার সেলের ওসি সুনন্দা সোনার বলেন, ‘‘ছাত্রীকে মেসেজ করে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পেয়েছি৷ গুরুত্ব দিয়েই আমরা বিষয়টি দেখছি৷’’

Advertisement
----
-----